You are currently viewing ভোটার নিবন্ধন স্লিপ হারিয়ে গেলে এনআইডি নম্বর ও কার্ড যেভাবে বের করবেন

ভোটার নিবন্ধন স্লিপ হারিয়ে গেলে এনআইডি নম্বর ও কার্ড যেভাবে বের করবেন

ভোটার নিবন্ধন স্লিপ হারিয়ে গেলে এনআইডি নম্বর ও কার্ড যেভাবে বের করবেন: অনেক সময় আমাদের ভুলের কারণে আইডি কার্ডের স্লিপ নাম্বার টা হারিয়ে যায় তারপর আমাদেরকে বিরাট একটা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়, কারণ ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বারটি আমাদের প্রতিনিয়ত প্রয়োজন পড়ে তাই আজকের এই পোস্টে আপনার ভোটার আইডি কার্ড নাম্বারটি এবং বিস্তারিত আপনার ভোটার তথ্য কিভাবে আপনি জানতে পারবেন তা এই পোস্টে বিস্তারিত বলে দেওয়া হবে।

আপনার যদি ভোটার স্লিপ হারিয়ে যায় তাহলে যেভাবে আপনি আপনার NID, এন আইডি নম্বর বা ভোটার আইডি কার্ড নম্বর অনলাইন থেকে বের করার কয়েকটি মাধ্যম রয়েছে যে মাধ্যম গুলো নিচে দেওয়া হল:

  1. প্রথমে আপনাকে জানতে হবে আপনার ভোটার আইডি নং নম্বর কত?
  2. আপনার ভোটার এলাকা কি?
  3. এবং ক্রমিক নং কত? (উদাহরণ স্বরূপ নিচের ছবিটি দেখুন)

ভোটার নিবন্ধন স্লিপ হারিয়ে গেলে এনআইডি নম্বর ও কার্ড যেভাবে বের করবেন

উপরের দেওয়া সকল তথ্য পেতে আপনার এলাকার মেম্বার, চেয়ারম্যান বা ইউনিয়নে যেতে পারেন,   এটা ভোটার লিস্ট বা তালিকা সিটে পাওয়া যায়।

এই সকল ভোটার তথ্য পাওয়ার জন্য আপনি আপনার এলাকার মেম্বার অথবা চেয়ারম্যান বা ইউনিয়ন যোগাযোগ করতে হবে।

ভোটার নিবন্ধন স্লিপ হারিয়ে গেলে এনআইডি নম্বর পাওয়ার উপায় সমূহ

4 নম্বরে. আপনি যখন অনলাইনে আপনার ভোটার আইডি কার্ডের জন্য অনলাইনে আবেদন করেছিলেন তখন আপনার সাথে নিশ্চিয় আরো অনেকে করেছিলো এমন কাউকে খুঁজে তার ভোটার স্লিপ নাম্বার অথবা আইডি কার্ড এর নাম্বার আপনি আনতে হবে। আরো সহজ হবে আপনি যে কম্পিউটারের দোকানে গিয়ে আবেদন করেছিলেন তার কাছে জিজ্ঞেস করলে সে এই তথ্য আপনাকে দিতে পারবে।

তারপর আপনি এই তথ্য নিয়ে আপনার ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার যেভাবে খুঁজে বের করবেন তা ধাপসমূহ নিচে দেওয়া হল।

5 নাম্বার. আপনি এখন প্রথমে নিচের দেওয়া লিঙ্কেটিতে ভিজিট করুন।
https://services.nidw.gov.bd/nid-pub/voter-info

তারপর আপনার সামনে নিচের দেওয়া পিকচারের মত একটি পেজ আসবে আপনার সামনে। যেখানে লেখা থাকবে ভোটার তথ্য আপনি যদি মেইন পেজে যান তাহলে মেনু অপশনে ক্লিক করলে ভোটার তথ্য লেখা একটি পেজ দেখতে পাবেন ক্লিক করলে উপরের পিকচারের মত দেখতে পাবেন।

সেখানে আপনি প্রথমে আপনার সেই ব্যক্তি বা ফ্রেন্ড এর ভোটার স্লিপ বা এন অাইডি NID নাম্বারটি দিবেন।তারপর জন্মতারিখ দিবেন।  ঠিক যেটি ওনি জন্ম সনদ এবং ভোটার নিবন্ধনে ব্যাবহার করেছেন,  যদি তা অজানা থাকে তাইলে অাপনার জন্ম সালটি দিন ।তারপর একটি ক্যাপচা থাকবে,সেটি কোন স্পেস ব্যাবহার করা ছাড়া পূরণ করবেন।

এখন আপনি ভোটার তথ্য দেওয়ার জন্য অপশন পাবেন এখন আপনি ঐ ব্যক্তি বা আপনি আপনার ফ্রেন্ড বা যে আপনার সাথে ভোটার আবেদন করেছিল তার ভোটার স্লিপ নাম্বার বা ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার টি দিবেন আপনি তারপর জন্ম তারিখ দিতে হবে।

যখন তার নিকট থেকে জন্ম তারিখ সংগ্রহ করবেন আপনি সঠিক ভাবে যাচাই করে নিবেন, এখন ঐ ব্যক্তির জন্ম তারিখ যদি আপনার জানা না থাকে তাহলে আপনার জন্ম তারিখ দিয়ে দিবেন। এবং কেপচারটি পূরণ করে ভোটার তথ্য দেখুন এ ক্লিক করবেন।

ভোটার স্লিপ নাম্বার এবং জন্ম তারিখ সবকিছু সঠিকভাবে থাকলে আপনি ঐ ব্যক্তির ভোটার নাম্বারটি পেয়ে যাবেন এবং এর সাথে ভোটার এলাকা ভোটার নাম্বার এই সব কিছু পেয়ে যাবেন আশা করি।

তবে আপনি এই তথ্যটি আপনার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বা মেম্বারের নিকট থেকেও দেখতে পারেন সাধারণত ভোটার সম্পূর্ণ লিস্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বা মেম্বারের নিকট থেকে থাকে ভোটার তালিকায়।

ভোটার নিবন্ধন স্লিপ হারিয়ে গেলে যেভাবে এনআইডি নাম্বার চেক করবেন

6 নাম্বার. (এই ধাপটি একটু মনোযোগ দিয়ে পড়ুন)
এবার মেইন কাজ হল, এখন আপনি দেখুন আপনার তথ্যের ক্রমিক নম্বর অথবা ভোটার নম্বর এবং আপনার আনা সেই ব্যক্তির ক্রমিক নাম্বার অথবা ভোটার নাম্বার কেমন কম অথবা বেশি। এখন যদি আপনারটি বেশি হয় তাইলে ঐ ব্যক্তির এন আইডির সাথে তত যোগ করে দিন, এখন যদি আপনার কম হয় তাহলে ঐ ব্যক্তির এন আইডির সাথে আপনি তত বিয়োগ করে দেন, এবং এখন আপনি ঠিক ৫ নম্বর এর মত করে খুজতে শুরু করেন।

{ উদাহরণস্বরূপ মনে করেন আপনার ক্রমিক নম্বর ২২৬৮, আপনার ফ্রেন্ড বা সেই ব্যক্তির ক্রমিক নম্বর হল ২২৬৩,}

( আপনি এখানে দেখতে পারতেছেন আপনার নাম্বারটি ওনার থেকে ৫ সেরিয়াল বেশি আছে। তাই ওনার NID ভোটার আইডি নম্বর 0018977313684000105 হলে আপনার হবে এর থেকে ৫ বেশি মানে 0018977313684000110.
তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে ২ /৩ সেরিয়াল কম বেশি হতে পারে।)

7 নাম্বার . এখন আপনি চেক করুন সেখানে পাওয়া ফলাফল এবং আপনার ভোটার নম্বর এবং ক্রমিক নম্বর সমান হয়েছে কি। যদি মিলে যায় তাহলে ফলাফলে যে নাম্বার রয়েছে এটি আপনার ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার।

এখন আপনি যদি এভাবে না পান তাহলে এক দুই সংখ্যা কম বেশি করে চেস্টা করবেন আশা করি পেয়ে যাবেন।

ভোটার আইডি কার্ড এর সম্পূর্ণ তথ্য বের করবেন যেভাবে

8 নাম্বার. যখন আপনার ভোটার আইডি কার্ড এর জন্য পেয়ে যাবেন পাওয়ার পর আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ডের বা জাতীয় পরিচয়পত্র এর সকল তথ্য দেখতে চান তাহলে আপনি service.nidw.gov.bd এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে একাউন্ট নেই বা রেজিস্ট্রার অপশনে ক্লিক করবেন।

এখন আপনি আপনার এই মাএ পাওয়া ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার দিবেন, জন্ম তারিখ, এবং কেপচার পূরণ করে সাবমিট অপশনে ক্লিক করুন, তার আপনার ভোটার তথ্য দিবেন যেমন আপনার ভোটার এলাকা, উপজেলা, জেলা, বিভাগ, সঠিক ভাবে দিন তার পর আপনি একটি মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভেরিফাই করতে হবে, তার পর NID Wallet এর মাধ্যমে আপনার ফেইস ভেরিফাই করতে হবে, তাঁরপর একটি ইউজারনেম পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনি লগইন ইনফরমেশন সেট করবেন যাতে করে পরবর্তীতে আপনি প্রবেশ করতে পারবেন সহজেই, তারপর পরবর্তী ধাপের গেলে আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন, এই সবকিছু ভালো ভাবে বুঝে কিভাবে রেজিস্ট্রেশন করবেন কিভাবে ভোটার আইডি কার্ড চেক করবেন আমাদের এই পোস্টটিতে ভিজিট করে আপনি সহজেই করতে পারবেন। ভোটার আইডি কার্ড চেক ও ডাউনলোড করার নিয়ম ২০২৩

আমাদের এই পোস্টটি আপনাদের হেল্পফুল হলে প্লিজ আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকবেন।Facebook Page here.

Please Share this article

Leave a Reply