ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

  • Post author:
  • Post last modified:December 1, 2022
You are currently viewing ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম
ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম নিয়ে সকল তথ্য উপস্থাপন করা হবে “ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম” এই আর্টিকেলে। ভোটার আইডি কার্ড বের করার যত নিয়ম রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে সহজ নিয়ম হচ্ছে ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড NID Card check by voter Number বের করা। আপনি চাইলে সহজেই ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করতে পারবেন। পাশাপাশি আপনার ভোটার আইডি কার্ড এর অনলাইন কপি ডাউনলোড ও করতে পারবেন ভোটার নাম্বার দিয়ে। সহজ কিছু ধাপ অনুসরণ করে আপনি অতি অল্প সময়েই যদি ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করতে চান তাহলে এই লেখাটি আপনার জন্য।

আপনি যেহেতু ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার বের করতে চান সেহেতু আপনি অবশ্যই ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করেছেন। অর্থাৎ ভোটার হওয়ার জন্য একটি ফরম পূরণ করেছেন। আর  আপনি যদি ভোটার হওয়ার জন্য ফরম পূরণ করে থাকেন তাহলে ফরম পূরণ করার পর আপনাকে অবশ্যই একটি অতিরিক্ত কাগজ প্রদান করা হয়েছে। সাধারণত সেই কাগজটিকে বলা হয় থাকে ভোটার স্লিপ। আপনি চাইলে এই ভোটার স্লিপ ব্যবহার করে অতি সহজেই আপনার ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার বের করতে পারেন।

আমরা যখন ভোটার হওয়ার আবেদন করি অর্থাৎ ভোটার হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী দিয়ে ফরম পূরণ করে থাকি কিছুদিন পরেই আমাদের ভোটে আইডি কার্ড হাতে পাই না। ভোটার আইডি কার্ড হাতে পাওয়ার জন্য আমাদেরকে কিছুদিন অপেক্ষা করতে হয়। এই প্রক্রিয়া টি বেশ কিছু বিষয়ের উপর নির্ভর করে তার জন্য আমাদেরকে কয়েকটা দিন অপেক্ষা করতে হয়। কিন্তু আপনি চাইলে আপনার এলাকার ভোটার লিস্ট থেকে আপনার ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার সংগ্রহ করতে পারেন যদি আপনার এলাকার ভোটার লিস্টে আপনার নাম থেকে থাকে। এছাড়াও আপনি চাইলে ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার বের করতে পারেন অনলাইনের মাধ্যমে। এই ক্ষেত্রে অনলাইনে মাধ্যমে ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার বের করার জন্য আপনার অবশ্যই ওই যে ভোটার স্লিপ টির প্রয়োজন হবে।

আবার দেখা যায় আপনারা অনেকেই আপনাদের ভোটার আইডি কার্ড হাতে পেয়েছেন। ভোটার আইডি কার্ড হাতে পাওয়ার পর আপনারা ভুলবশত আপনাদের আইডি কার্ডটি হারিয়ে ফেলেছেন যার কারণে এখন আপনাদের ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বারটা প্রয়োজন হওয়া সত্ত্বেও আপনি পাচ্ছেন না। এমন অবস্থায় আপনি চাইলে আপনার ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার টি সংগ্রহ করতে পারেন। পাশাপাশি ভোটার আইডি কার্ডের অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারেন আপনার ভোটার স্লিপ ব্যবহার করে। এছাড়াও আপনার যদি ভোটার আইডি কার্ড এর নাম্বার জানা থাকে এবং আপনি ভোটার আইডি কার্ড বের করতে চান সেটাও আপনি করতে পারবেন এই লেখাটির মাধ্যমে।

আপনারা যারা এই পর্যন্ত আমাদের আর্টিকেলটি পড়ে এখনো ঠিকমতো বুঝতে পারেননি ভোটার স্লিপ কি তাদের জন্য ভোটার স্লিপ এর নিচে একটি ছবি দেওয়া হয়েছে। আপনারা নিজের ছবিটি ভালো করে লক্ষ্য করলেই বুঝতে পারবেন ভোটার স্লিপ কি। এছাড়াও নিচের ছবিটিতে আপনার মনোযোগ দিয়ে দেখেন তাহলে দেখতে পারবেন ডান পাশের উপরে একটা সংখ্যা রয়েছে। আপনাদের ভোটার আইডি কার্ড বের করতে এটির প্রয়োজন হবে। এই সংখ্যাটা ছাড়া আপনারা ভোটার আইডি কার্ড বের করতে পারবেন না যদি আপনাদের কাছে আইডি কার্ডের নাম্বার না থাকে।চলুন তাহলে ধাপে ধাপে দেখে নেওয়া যাক ভোটার নাম্বার বের করার সহজ নিয়ম।

ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

ভোটার নাম্বার বের করার সহজ নিয়ম

আর্টিকেল এর এই পর্যায়ে এসে আপনারা নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন  ভোটার নাম্বার বের করার জন্য আমাদেরকে ভোটার স্লিপে থাকা নাম্বার টি প্রয়োজন হবে। ভোটার স্লিপে থাকা নাম্বার দিয়ে ভোটার নাম্বার বের করার জন্য আপনাকে একটি ওয়েবসাইটের সাহায্য নিতে হবে। এই ওয়েবসাইটটি বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট। (services.nidw.gov.bd) আপনারা যে কোন একটি ব্রাউজার এ চলে আসবেন। তারপর উল্লেখিত ওয়েবসাইটে চলে যাবেন। উল্লেখিত ওয়েবসাইটে  চলে যাওয়ার পর আপনারা নিচে দেখানো ছবিটির মধ্যে একটি ইন্টারফেস দেখতে পাবেন। এই ইন্টারফেসে আসার পর আপনারা প্রথমে আপনার স্লিপে থাকা নাম্বার, জন্ম তারিখ এবং পরিশেষে একটি ক্যাপচা পুরুন করে আপনারা সাবমিট বাটনে ক্লিক করার মাধ্যমে নাম্বার দেখতে পাবেন।

ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

এবার আসা যাক যারা নতুন ভোটার হয়েছেন তারা কী করে ভোটার নাম্বার বের করবেন। আপনাদের জন্য ও  একই নিয়ম। আপনারা প্রথমে উপরে উল্লেখ করা ওয়েবসাইটিতে চলে আসবেন। তারপর পূর্বের ন্যায় প্রথমে আপনাদের ভোটার স্লিপ এ থাকা নাম্বারটা দিয়ে দিবেন। তারপরে আপনার ভোটার ফরম উল্লেখ করা জন্ম তারিখ দিয়ে দিবেন। তারপর ক্যাপচা পূরণ করে সাবমিট করলেই আপনি আপনাদের ভোটার নাম্বার সহ যাবতীয় সকল তথ্য দেখতে পাবেন।

READ COMPLETE: ভোটার আইডি কার্ড চেক ও এন আইডি ডাউনলোড করার নিয়ম ২০২২

ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করে কিভাবে?

ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার জন্য আপনার প্রথমে চলে যেতে হবে services.nidw.gov.bd এই ওয়েব অ্যাড্রেস-এ। এই ওয়েব অ্যাড্রেস-এ যাওয়ার পর আপনি ভোটার তথ্য এই পেজে যাবেন। এই ওয়েব পেজে আসার পর আপনাকে প্রথমে আপনার ভোটার নাম্বার দিতে হবে। ভোটার নাম্বার দেওয়ার পর আপনার জন্ম তারিখ সঠিকভাবে দিতে হবে। আপনার জন্ম তারিখ সঠিকভাবে দেওয়ার পর আপনাকে একটি ক্যাপচা পূরণ করতে হবে। সঠিক ভাবে ক্যাপচা পূরণ করার পর আপনি সাবমিট বাটনে ক্লিক করবেন। সাবমিট বাটনে ক্লিক করলে আপনার ভোটার কার্ডের যাবতীয় ইনফর্মেশন দেখতে পাবেন।

ভোটার নাম্বার কোথা থেকে সংগ্রহ করবেন?

এবার তাহলে জানা যাক ভোটার নাম্বার আপনি কিভাবে সংগ্রহ করবেন। ভোটার নাম্বার সংগ্রহ করা বেশ কঠিন কোন কাজ নায়।আপনি যে এলাকা থেকে আপনার ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করেছেন অর্থাৎ আপনার নির্বাচনী এলাকায় যখন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে সেই সময় নির্বাচনে প্রার্থীদের কাছ থেকে আপনি ভোটার লিস্ট সংগ্রহ করতে পারবেন। সেই ভোটার লিস্টে আপনি আপনার ভোটার নাম্বার দেখতে পাবেন। সেখান থেকে আপনি সহজেই আপনার ভোটার নাম্বার সংগ্রহ করতে পারেন।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে কিভাবে ভোটার নাম্বার বের করে?

আর্টিকেল এর শেষ পর্যায়ে এসে তাহলে জেনে নেওয়া যাক মোবাইল নাম্বার দিয়ে কিভাবে ভোটার নাম্বার বের করে। আমরা অনেকেই শুনে এসেছি যে মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার নাম্বার বের করা যায়। কিন্তু এটা সত্যি নয় কিংবা সঠিক নয়। আপনি মোবাইল নাম্বার দিয়ে  কখনোই ভোটার নাম্বার বের করতে পারবেন না। ভোটার নাম্বার বের করার জন্য হয় আপনাকে ভোটার স্লিপ এর সাহায্য নিতে হবে। অথবা আপনার ভোটার আইডি কার্ড এর নাম্বার প্রয়োজন হবে। কাজেই আশা করি বুঝতে পারেছেন মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার নাম্বার বের করা যায় না বা এটা অসম্ভব।

স্মার্ট কার্ড চেক করার নিয়ম ও ডাউনলোড করার সহজ উপায় |

ভোটার আইডি কার্ড সম্পর্কিত প্রশ্ন ও উত্তর |

ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম

ভোটার নাম্বার কোথা থেকে সংগ্রহ করবেন?

এবার তাহলে জানা যাক ভোটার নাম্বার আপনি কিভাবে সংগ্রহ করবেন। ভোটার নাম্বার সংগ্রহ করা বেশ কঠিন কোন কাজ নায়।আপনি যে এলাকা থেকে আপনার ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করেছেন অর্থাৎ আপনার নির্বাচনী এলাকায় যখন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে সেই সময় নির্বাচনে প্রার্থীদের কাছ থেকে আপনি ভোটার লিস্ট সংগ্রহ করতে পারবেন।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে কিভাবে ভোটার নাম্বার বের করে?

মোবাইল নাম্বার দিয়ে কিভাবে ভোটার নাম্বার বের করে। আমরা অনেকেই শুনে এসেছি যে মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার নাম্বার বের করা যায়। Visit kore article porle bujte parben.

Leave a Reply