পঁয়ত্রিশর্ধ্বোরা আর শিক্ষক হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না (দৈনিক শিক্ষা খবর)

You are currently viewing পঁয়ত্রিশর্ধ্বোরা আর শিক্ষক হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না (দৈনিক শিক্ষা খবর)

মামলা নয় মেধাই হোক মানদন্ড : পঁয়ত্রিশর্ধ্বোরা আর শিক্ষক হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না (দৈনিক শিক্ষা খবর)

শিক্ষক হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না পয়ত্রিশর্ধ্বে নিবন্ধন প্রার্থীরা । পূর্বে একবার মামলা মোকদ্দমা করে এমন সুযোগ পেয়েছিলেন। বিষয়টি এমপিও ভুক্ত নীতিমালার সাথে সাংঘর্ষিক ছিল। বেসরকারি নিবন্ধন শিক্ষক ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ এনটিআরসিএ এর কর্মকর্তারা দৈনিক আমাদের বার্তাকে জানিয়েছেন । অর্থাৎ চতুর্থ গনবিজ্ঞপ্তি তারা আবেদন এর সুযোগ পাচ্ছে না। আগামী অক্টোবর এর শেষের দিকে এ গনবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে।

দৈনিক শিক্ষা:

এর আগে তৃতীয় গনবিজ্ঞপ্তি পয়ত্রিশোর্ধ নিবন্ধন পাশ প্রার্থীরা শিক্ষক হওয়ার আবেদন এর সুযোগ পেয়েছিলেন। সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রায় ও তাদের সে সুযোগ বহাল রেখেছিল। কিন্তু সে রায়ের রিভিউ আবেদন করিছিল এনটিআরসিও ।এ রায়ের বিধি বিধান অনুযায়ী শিক্ষক পদে নিয়োগ এর নির্দেশনা এসেছে।

এনটিআরসিওর চেয়ারম্যান মোঃ এনামুল কাদের দৈনিক আমাদের বার্তার সাথে আলাপকালে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন তৃতীয় গনবিজ্ঞপ্তিতে আপিল বিভাগের রায়ের প্রেক্ষিতে পয়ত্রিশোর্ধব প্রার্থীদের আবেদন এর সুযোগ দেয়া হয়েছিল কিন্তু আপিল বিভাগের রায়ের রিভিউ করা হয়েছিল।এতে বিধি বিধান অনুযায়ী শিক্ষক পদে নিয়োগ সুপারিশ এর নির্দেশনা এসেছে ।সে অনুযায়ী এমপিও নীতিমালা মেনে শিক্ষক পদে নিয়োগ এ ৩৫ বছর এর কম বয়সী প্রার্থীরা নিয়োগ সুপারিশ থেকে আবেদন এর সুযোগ পাবেন।

পঁয়ত্রিশর্ধ্বে প্রার্থীদের সাথে আলোচনা করে জানা যায় নীতিমালা জারির পর তারা শিক্ষক নিয়োগ এর আবেদন এর সুযোগ চেয়ে একটি রিট করেন সে রিট শুনানি শেষে হাইকোর্ট এ পয়ত্রিশোর্ধবদের আবেদন এর সুযোগ দিয়ে রায় দেয়।রায়ে বলা হয় ২০১৮ খ্রি ১২ জুন এমপিও নীতিমালা জারির আগে যারা শিক্ষক নিবন্ধন সনদ পেয়েছেন তাদের আবেদন এর সুযোগ দিতে হবে।পরে এনটিআরসিএ আপিল করে আপিল বিভাগ শুনানি শেষে রায় দেয়।রায়ে পয়ত্রিশর্ধ্বে নিবন্ধদিত প্রার্থীদের আবেদন এর সুযোগ দেয়ার নির্দেশ দেয় ।পরে এনটিআরসিএ আপিল বিভাগের রায় রিভিউ এর আবেদন এর আপিল করে । রিভিউ এর বিধি বিধান অনুযায়ী শিক্ষক নিয়োগ এর নির্দেশনা এসেছে।

পরিশেষে আমাদের এই প্রত্যাশা যাই হোক না কেন শিক্ষার্থীরা আমাদের জাতির ভবিষ্যৎ তাই আমাদের এই ভবিষ্যত কে মজবুত করার জন্য দরকার এমন এক মেধাবী এবং কর্মঠ কারিগর যার দ্ধারা আমাদের ভবিষ্যৎ হয়ে উঠুক আরো মজবুত ,মেধাবি যাদের আলোয় আলোকিত হোক গোটা জাতি।

Leave a Reply