বিসিএস ক্যাডার চয়েস কিভাবে করবেন | ৭টি গূরুত্বপূর্ণ বিসিএস ক্যাডার চয়েস লিস্ট

You are currently viewing বিসিএস ক্যাডার চয়েস কিভাবে করবেন | ৭টি গূরুত্বপূর্ণ  বিসিএস ক্যাডার চয়েস লিস্ট
বিসিএস ক্যাডার চয়েস কিভাবে করবেন

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম ” হে প্রভু আমাদের কে শক্তি দাও আমরা যেন ধৈর্য্য এর সহিত আমাদের জীবনকে সঠিক লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারি। আজকে আমারা যে বিষয় সম্পর্কে জানতে পারব সেটি হলো বিসিএস ক্যাডার চয়েস কিভাবে করবেন এবং ৭টি গুরুত্বপূর্ণ বিসিএস ক্যাডার চয়েস।

প্রিয় বিসিএস পরীক্ষার্থী এবং যারা বিসিএস পরীক্ষা দিবেন তাদের একটু বিসিএস ক্যাডার কীভাবে চয়েজ করবেন এবং এই সব ক্যাডার সম্পর্কে কিছু বিষয় আছে তা শেয়ার করব।

বিসিএস ক্যাডার:

ক্যাডার সাধারণত তিন প্রকার

১, সাধারণ ক্যাডার

২, শিক্ষা ক্যাডার

৩, টেকনিক্যাল বা প্রফেশনাল ক্যাডার ।

বিসিএস সাধারণ ক্যাডার গুলো:

ক, পররাষ্ট্র

খ, প্রশাসন/ পুলিশ

গ,অডিট/ কাস্টমস/ ট্যাক্স

ঘ, তথ্য ও আনসার

ঙ, রেলওয়ে ও খাদ্য

চ, সমবায় ও পরিবার

বিসিএস সাধারন ক্যাডার: সাধারণ ক্যাডার এ সবাই আবেদন করতে পারবেন। অর্থাৎ অনার্স পাশ কৃত সকল ই বিসিএস সাধারন ক্যাডার এ আবেদন করতে পারবেন।

বিসিএস শিক্ষা ক্যাডার :যারা মূলত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বা Teachers Training College থেকে অথবা পলি টেকনিক্যাল কলেজ এর তারা বিসিএস শিক্ষা ক্যাডার এ আবেদন করতে পারবেন।

বিসিএস ক্যাডারদের বেতন স্কেল সম্পর্কে জানতে ভিজিট করুন

টেকনিক্যাল বা প্রফেশনাল ক্যাডার: যারা নির্দিষ্ট বিষয়ে পড়াশোনা করেন তারা তেমন, চিকিৎসক , প্রকৌশলী তারা প্রফেশনাল ক্যাডার এ আবেদন করতে পারবেন।

তবে ইচ্ছা করলে দুটি তেই আবেদন করতে পারবেন আবার নির্দিষ্ট একটি তে ও আবেদন করতে পারবেন।

Graduation Complete হলে আপনি সাধারণ ক্যাডার ও আবেদন করতে পারবেন ।

আপনি আবেদন করার সময় দেখবেন বিসিএস ক্যাডার চয়েজ এ দুটি অপশন আছে আপনি চাইলে সাধারণ ক্যাডার এ ও আবেদন করতে পারবেন আবার বিসিএস শিক্ষা ক্যাডার,ও প্রফেশনাল, প্রকৌশলী ক্যাডার ও আবেদন করতে পারবেন।

আরেকটি বিষয় হচ্ছে ক্যাডার গুলো সিরিয়াল করা হয় কিন্তু সুবিধার ভিত্তিতে আবার সুবিধা ভাগ করা হয়েছে Service এর ভিত্তিতে।

সুবিধা কে দুটি ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে যথা,‌বৈধ সুবিধা ও অবৈধ সুবিধা।

বৈধ সুবিধা হচ্ছে দেশের মঙ্ঘলার্থে কাজ করা, আর্থিক উন্নতির জন্য কাজ ইত্যাদি বিষয়ে কাজ করাই বৈধ সুবিধার্থে কাজ করা।

অবৈধ সুবিধা কি এটা লিখার প্রয়োজন পড়ে নি কেননা এই বিষয় আমরা অনেকেই জানি।

বিসিএস ক্যাডার এ কয়েকটি ক্যাডার নিয়ে কিছু তথ্য শেয়ার করলাম।

বিসিএস পররাষ্ট্র ক্যাডার:

জনপ্রিয়তার দিক থেকে এই ক্যাডার সবচেয়ে এগিয়ে আছে। সর্বাধিক মেধাবী Smart ,ত্যাগী , বুদ্ধিদীপ্তরাই যারা কঠোর পরিশ্রমী তারাই এ ক্যাডার এ সুযোগ পেয়ে থাকেন। তবে সম্ভবত এই ক্যাডার এ খালি পোস্ট খুব কম দেখা যায়।এই বিসিএস পররাষ্ট্র ক্যাডার এ প্রতিযোগীতা ও চাহিদা সবচেয়ে বেশি।এই পররাষ্ট্র ক্যাডারাই কিছু আকর্ষণীয় সুযোগ সুবিধা পেয়ে থাকেন। Join করার পর ই এই ক্যাডারদের ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পোস্টিং হয়। বিদেশে পোস্টিং হতে সময় লাগে ৬ থেকে ৭ বছর। বিদেশে পোস্টিং হলে বিশেষ কিছু সুবিধা পাওয়া যায়। বিদেশে বিলাস বহুল জীবন পরিবার নিয়ে এমন কি দেশ থেকে কাজের লোক পর্যন্ত নিতে পারবেন।

বর্তমান পররাষ্ট্র সচিব তিনি একজন হার্ভার্ড Graduate ।

উচ্চশিক্ষা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে জাতিসংঘে যাওয়ার সুযোগ আছে।

বিসিএস প্রশাসন ক্যাডার:

বিসিএস প্রশাসন ক্যাডার আরেকটি অন্যতম ক্যাডার।এর নাম থেকেই বুঝা যায় এটা কতটা উন্নত মানের স্তর।ক্যাডার শুরু হয়েছে মূলত এই ক্যাডার দিয়ে।দেশ পরিচালনা করা হয় এই ক্যাডার দিয়ে। পূর্বে ৯০% লোক এই ক্যাডার চয়েজ দিয়েছেন। বর্তমান এ প্রায় ৫০% – ৬০% লোক এই ক্যাডার চয়েজ দিয়ে থাকেন।এই কারাগার এর অনেক জনপ্রিয়তা আছে।এই ক্যাডারের পোস্টিং এর শুরুতে মফস্বল এলাকায় কাজ করার সুযোগ প্রায় রয়েছে এবং জনগণের সাথে কাজ করার সুযোগ, চাকরিতে প্রবেশের সাথে সাথে অফিসে কাজ করার সুযোগ তো রয়েছে ই।

মন্ত্রনালয়ে কাজ করার সুযোগ আছে সহকারী সচিব হিসেবে।

৭/৮ বছর পর ইউএনও হওয়া যায়।আর একজন ইউএনও কে সরকার পরিচালিত উপজেলার রাজা বলা হয়। ইউএনও হলে মন্ত্রণালয় থেকে গাড়ি দেয়া হয়। উপজেলার বিভিন্ন অনুষ্ঠানে চীফ গ্যাস্ট হিসেবে মনোনীত করা হয়। আবার ডিসি দের উপজেলা স্তরের সর্বাধিক ক্ষমতার অধিকারী তাদের কে ও অনেক সুবিধা দেয়া হয়। তাদের প্রমোশন অনেক বেশি।

বিসিএস পুলিশ ক্যাডার:

পুলিশ জনগণের বন্ধু। সারাদিন অক্লান্ত পরিশ্রম করে সাধারণ মানুষের বিপদে এগিয়ে আসে সেই পুলিশ কে আমরা অনেকেই জানি না। কিন্তু বিসিএস এর এই পুলিশ ক্যাডার রাই আমাদের বিপদে দূর্যোগ এ এগিয়ে আসছে। কয়েকদিন পূর্বে এই করোনা কালীন মহামারীর সময় এই পুলিশ তাদের জীবন বাজি রেখে এগিয়ে এসেছিল। পুলিশ ক্যাডার এ রেশন সুবিধা পাওয়া যায় । প্রমোশন ও আছে । এমনকি উন্নত জীবনের সন্ধান পাওয়া যায়।

বিসিএস কাস্টমস:

এই ক্যাডারদের এডমিন পুলিশ এর মত পাওয়ার প্রেকটিসের সুযোগ একেবারে কম।

পোর্টে কাজের চাপ অনেক বেশি তবে VAT এ কম রয়েছে।

কাস্টমস ক্যাডার অর্থমন্ত্রনালয়ের NBR একটি ডিভিশন IRD একটি উইং। বৈধ উপায়ে অনেক অর্থ উপার্জন করা যায়।চুরাচালান একটি ধরলে সরকারি ভাবে অনেক পুরস্কার পাওয়া যায়। সরকার ১০-৪০% পর্যন্ত পুরস্কার দিয়ে থাকে। Logistics support অনেক ভালো। promotion growth ও অনেক ।যাদের চাকরির বয়সসীমা কম তারা প্রথমেই এই ক্যাডার টা চয়েজ দিতে পারেন।

বিসিএস ট্যাক্স ক্যাডার

জনপ্রিয় একটি ক্যাডার বিসিএস ট্যাক্স ক্যাডার। অর্থমন্ত্রনালয়ের IRD একটি ধাপ। এনবিআর এর সদস্য হিসেবে কাজ করেন। promotion growth টা ও অনেক বেশি। এনবিআর এর সদস্য হওয়া সত্ত্বেও কাস্টমস ক্যাডারদের বড় চেয়ে এগিয়ে। চাকরির শুরুতে ঢাকার বাইরে পোস্টিং এর সুযোগ রয়েছে। কাজের চাপ ও অনেক কম।চাইলে বৈধ উপায়ে অনেক অর্থ উপার্জন করা যায়। Grand of Rewards পাওয়া যায়। এই ট্যাক্স ক্যাডার এ।

বিসিএস Economic ক্যাডার

বিসিএস Economic ক্যাডার অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটা ক্যাডার।এই ক্যাডার এ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে থাকার সুযোগ রয়েছে। Promotion growth মাঝামাঝি। যোগ্যতার ভিত্তিতে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থায় কাজের সুযোগ আছে। এসব সংস্থার কিন্তু অনেক বেতন।

বিসিএস অডিট ক্যাডার

সরকারি বিকাশ ও তদারকির কাজ করেন এই বিসিএস অডিট ক্যাডার গন। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের হিসাব নিকাশ এর কাজ বিসিএস অডিট ক্যাডার গন এর। দেশের হিসাব এ এদের ভূমিকা অন্যতম।এই ক্যাডারদের সাংবিধানিক একটি ধাপ রয়েছে ।এই ক্যাডারাও উন্নত জীবন যাপন করেন।

সবশেষে একথা বলতে চাই ধৈর্য ও পরিশ্রমের সহিত এগিয়ে যান ।দেখব আপনার স্বপ্ন আপনাকে খুঁজছে। কয়েকটি ক্যাডার আপনাদেরকে শেয়ার করলাম একটু কষ্ট করে ও দেখবেন পড়বেন । ভূল হতে ই পারে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন এবং কমেন্ট করবেন।

Leave a Reply