প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগে ৫০ এর নিচে মার্ক পেয়ে ও হওয়ার সম্ভাবনা

You are currently viewing প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগে ৫০ এর নিচে মার্ক পেয়ে  ও হওয়ার সম্ভাবনা
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের সর্বশেষ খবর

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের সর্বশেষ খবর: সুপ্রিয় চাকরি প্রত্যাশী বন্ধুরা আজ মজার একটি বিষয় আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম তা হল কম মার্কস পেয়ে ও কীভাবে আমাদের চাকরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। চাকরি প্রত্যাশী সবাই চায় এত কষ্ট করে পরীক্ষা দেয়ার ফলটা যেন ভালো হোক সে যতই খারাপ student হোক না কেন তার Result কিন্তু ভালো আশা করে। কম মার্কসধারী তাদের এই আশা হয়তো বাস্তবে রূপ নিবে । কারন ৫০ মার্কস এর কমে হয়তো চাকরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।আমি বিষয়টি ব্যাখা করবো আপনাদের সাথে শেয়ার করে।

আমি আপনাদের সাথে ২০১৮ সালের পরীক্ষার্থীদের সংখ্যা ,শিক্ষাগত যোগ্যতা / পদসংখ্যা / প্রশ্নের ধরন/ ধাপ / কাট মার্ক/ রিটেন এ পাশ / উপজেলা ভিত্তিক পদ শেয়ার করলাম

  • ২০১৮ সালের আবেদন কারীর সংখ্যা ছিল প্রায় ২৪ লক্ষ।
  • শিক্ষাগত যোগ্যতা ছিল HSC পাশ।
  • পদসংখ্যা …….১৮০০০.
  • প্রশ্নের ধরন …….. সহজ।
  • প্রশ্নের ধাপ……..চার ধাপ।
  • কাট মার্ক …….৫৫/৬০।
  • রিটেন এ পাশ….. প্রায় ৫৫২৯৫।
  • উপজেলা ভিত্তিক পদ………..১৮০০০.

প্রাইমারি শিক্ষকদের বেতন স্কেল ?

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের সর্বশেষ খবর

এবার আমি ২০২০ সালের আবেদন কারীর সংখ্যা /শিক্ষাগত যোগ্যতা/ পদসংখ্যা/ প্রশ্নের ধরন/ ধাপ/ কাটমার্ক/রিটেন এ পাশ/ উপজেলা ভিত্তিক পদ শেয়ার করলাম

  • আবেদনকারীর সংখ্যা……১৩ লক্ষ ৯ হাজার ৪৬১ জন।
  • শিক্ষা গত যোগ্যতা …… স্নাতক।
  • পদসংখ্যা……….৪৫০০০.
  • প্রশ্নের ধরন……… কঠিন।
  • ধাপ……..তিন ধাপ।
  • কাট মার্ক ……..৩৫/৩৮.
  • রিটেন এ পাশ……..১৫১৮২৫।
  • উপজেলা ভিত্তিক পদ……..৪৫০০০+৫০০০০।

প্রাথমিক শিক্ষক বদলি নীতিমালা ২০২২

৫০ এর মতন মার্ক পেয়ে চাকরি হওয়ার আরেকটি অন্যতম কারন হচ্ছে:

এতএব এই উপরোক্ত বিষয়গুলো থেকে বুঝা যায় ২০১৮ সালে অনেকেই আবেদন করার সুযোগ পেয়েছিলেন। আবার দেখা যায় শিক্ষাগত যোগ্যতার কারনে অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির জন্য preparation নিয়ে থাকে এবং তারা বিভিন্ন কোচিং সেন্টারে ও পড়ে থাকে যার কারনে তারা যে প্রশ্নগুলো পড়ে থাকে সেগুলো থেকেই প্রাইমারি নিয়োগ পরীক্ষায় অনেক প্রশ্ন common পড়ে কিন্তু তারা এবার আর আবেদন করতে পারবেন না।এটাই হতে পারে একটি কারন।

আবার যে তিনটি কারনে কম মার্কস এ চাকরি হবে ।

  • প্রথম কারন: কিছু প্রার্থী ভাইভা পরীক্ষা দিবেনা। কেননা অনেক প্রার্থীদের লিখিত পরীক্ষা‌ পরে প্রাইমারি result এর পূর্বে ইং তাদের আরো ভালো চাকরি হল তারা কিন্তু আর ভাইভায় যাচ্ছেনা।
  • কিছু প্রার্থী কিন্তু বাতিল হয়েছে কেননা তারা বিভাগ এ ভুল করছে আবার কারো result ফার্স্ট ক্লাস তিনি পয়েন্ট দিয়ে দিছেন,আবার কারো এখনি result পাননি তিনি আনুমানিক একটি result দিয়েছেন এসব কারনে ও হতে পারে।
  • আবার আরো একটি কারন হতে পারে যারা ভার্সিটিতে পড়ছে তারা কিন্তু বিসিএস দিতে পারবে তারা আর প্রাইমারিতে আসছেনা।

এসব কারনে ও ৫০ মার্ক পেয়েও চাকরি হতে পারে অর্থাৎ কম মার্কস এ চাকরি হতে ও পারে। কাউকে হতাশ করা ভালো না সবাইর চাকরি একদিন হবে কথায় আছে না ,

সংসার সাগরে দুঃখ তরঙ্গের খেলা ,

আশায় তার একমাত্র ভেলা।

সবশেষে বলতে চাই কষ্টে ইষ্ট মেলে ,কষ্ট করে পড়লে জীবনে একবার ও পরিশ্রম কাজে লাগবে হয়তো অনেকেই অনেক মেধাবী কিন্তু পরীক্ষার সময় হয়তো কোন সমস্যার সম্মুখীন পরীক্ষাটি ভালো নাও হতে পারে যারকারনে কম মার্কস পেয়েছেন তাই বলে কি তার চাকরি হবেনা ইনশাআল্লাহ তার ও আশা একদিন পূরন হবে ।আমার এই পোস্ট টিতে ভূল হলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।

প্রাইমারি পেনশন ও বেসরকারি শিক্ষক পেনশনে পার্থক্য কেমন

Leave a Reply