পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২

You are currently viewing পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২
পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২

পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২: আপনি যদি না জানেন তাহলে এই আর্টিকেল টি শেষ পর্যন্ত পড়ুন। কেননা এই আর্টিকেলে আপনি পেনশন হিসাব করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পারবেন। পেনশন হিসাব করার নিয়ম সবসময় যে একই থাকবে তা কিন্তু নয়। তাই আমরা আপনাদের সাথে পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২ শেয়ার করবেন।

পেনশন হিসাব ২০২২

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠক, কেমন আছেন? আশা করি আপনি অনেক ভালো রয়েছেন। পেনশন! একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আমরা সবাই ই আমাদের পেনশন নিয়ে নানাবিধ চিন্তা করে রেখেছি। পাশাপাশি পেনশন নিয়ে রয়েছে আমাদের বিভিন্ন চিন্তা চেতনা, রয়েছে নানা পরিকল্পনা। বলা যায়, পেনশন হলো আমাদের বহুল কাঙ্ক্ষিত একটি বিষয় ও আমাদের স্বপ্ন। কারণ মানুষ যখন পেনশন পায় তখন সে তার মনে জমে থাকা নানা স্বপ্ন বাস্তবে রূপ দিতে পারে।

আপনি যদি একজন সরকারি কর্মকর্তা বা কর্মচারী হয়ে থাকেন পাশাপাশি আপনি যদি নির্দিষ্ট সময় চাকরি করে থাকেন বা শেষ পর্যন্ত চাকরি করে থাকেন তাহলে আপনি অবশ্যই পেনশন পাবেন ইনশাল্লাহ। কিন্তু আমরা আগেই জানতে চাই আমরা পেনশন হিসেবে কতো টাকা পাবো। আপনি তখনই জানতে পেরেছেন যখন আপনি পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২ জানতে পারবেন। আর পেনশন হিসাব করার নিয়ম জানতে আর্টিকেল টি শেষ পর্যন্ত পড়তে থাকুন।

সরকারি পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২ বাংলাদেশ

মনে করুন, আপনার লাস্ট বেসিক বা প্রত্যাশিত শেষ বেতন ২৮০০০/ টাকা। তাহলে লাম্পগ্র্যান্ট হবে আপনার : শেষ Basic×১৮ হবে। অর্থাৎ আপনার মূল বেতনের ১৮ মাসের সমপরিমান টাকা। উদাহরণ হিসেবে ধরা যাক: লাম্পগ্র্যান্ট, যা পেনশন/পিআরএল এর শুরুতে এককালীন পাবেন ২৮০০০ x ১৮=৫,০৪,০০০/=টাকা (তবে মনে রাখতে হবে এটা নির্ভর করে উক্ত ব্যাক্তির ছুটি পাওনা থাকা এর উপর। যত মাস ছুটি পাওনা থাকবে ঠিক তাতো মাসের বেসিক একত্রে পাবেন, তবে এটা সর্বোচ্চ ১৮ মাসের বেশি পাবেন না )

এবার তাহলে গ্রাচুইটি হিসাব করা যাক : যা আপনি পিআরএল (PRL) শেষ হওয়ার পর এককালীন তথা একত্রে পাবেন। ধরুন আপনার পি আর এল শেষে ইনক্রিমেন্টসহ আপনার সর্বশেষ Basic ২৮০০০+১২০০ (ইনক্রিমেন্ট)=২৯,২০০ টাকা বা, শেষ মূল বেতন বা ইএলপিসি অনুসারে (বেসিক×৯০%)÷২=( )×২৩০

উদাহরণ হিসেবে ধরা যাক : (২৯,২০০×৯০%)÷২=()×২৩০=( )

=(২৬২৮০÷২)×২৩০

=১৩১৪০×২৩০

=৩০,৩২,০০০/=টাকা।

এখানে আপনার শেষ বেসিক এর সাথে পি আর এল এ থাকার সময়ের একটি ইনক্রিমেন্ট যোগ হবে এবং তারসাথে সেই একইভাবে হিসাব করতে হবে।

পেনশন হিসাব করার সূত্র হলো: (শেষ বেসিক x ৯০%)÷২ = ( )+১৫০০ (মাসিক চিকিৎসা ভাতা)

উদাহরণ হিসেবে ধরা যাক : (২৯,২০০×৯০%)÷২=()+১৫০০/=টাকা। =(২৬,২৮০÷২)=()+১৫০০/=টাকা। =১৩,১৪০+১৫০০/=টাকা
=১৪,৬৪০/= টাকা যা আপনি প্রতি মাসে চিকিৎসা ভাতা সহকারে পেনশন পাবেন।পাশাপাশি প্রতি বছর দুইটি উৎসব ভাতা এবং তার সাথে পহেলা বৈশাখে ২০% হারে একবার ভাতা পাবেন।

জিপিএফ ব্যালেন্স ক্যালকুলেট করার নিয়ম: GPF balance calculation

পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২

পেনশন হিসাব ক্যালকুলেটর

উপরোক্ত হিসাবগুলো আপনার কাছে জটিল মনে হতে পারে কিন্তু সত্যি কার অর্থে একদমই জটিল কিংবা কঠিন নয়। শুধু সহজ কিছু টার্ম যদি আপনি বোঝার চেষ্টা করেন তাহলেই আপনি এই হিসাব বুঝতে পারবেন। যদি আপনার এরপরেও বুঝতে সমস্যা হয় তবে আপনাকে আমরা অনুরোধ করবো আমাদের  পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২ নিয়ে আর্টিকেল টি আবার শুরু থেকে পড়ার জন্য। তাহলেই আপনি আশা করি সবকিছু সহজ ভাবে বুঝতে পারবেন। পাশাপাশি আপনার পেনশন ও হিসাব করতে পারবেন।

আপনি চাইলে পেনশন ক্যালকুলেটর দিয়ে আপনার পেনশন হিসাব করতে পারবেন এর জন্য আপনি আমাদের পেনশন ক্যালকুলেটর দিয়ে দিয়ে হিসাব করার পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ে আসেন: pension calculator

আমাদের সবারই উচিত আমাদের পেনশন আগে থেকেই হিসাব করে নেওয়া। পেনশন হিসাব করার জন্য তো আমাদের পেনশন হিসাব করার নিয়ম জানতে হবে।আর আপনাদের পেনশন হিসাব করার নিয়ম জানানোর জন্যই আমাদের এই আর্টিকেল। আশা করি আপনারা আমাদের আর্টিকেল টি পড়ে একটু হলেও উপকৃত হবেন।

পেনশন হিসাব করার নিয়ম শেষ কথা

এই আর্টিকেলে আমরা আপনাদের সাথে পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২ নিয়ে আলোচনা করার পাশাপাশি পেনশন হিসাব করার নিয়ম ২০২২ পেনশন হিসাব ২০২২,পেনশন হিসাব ক্যালকুলেটর,পেনশন হিসাব করার নিয়ম এই বিষয়গুলো ও জানানোর চেষ্টা করেছি।

আমাদের আর্টিকেল টি আপনাদের কাছে কেমন লেগেছে সেটা আপনি কমেন্ট করে জানাতে পারেন। পাশাপাশি পরবর্তীতে আপনি কি রকমের আর্টিকেল চান সেটাও আমাদের জানাতে পারেন কমেন্ট করে। আজকের আর্টিকেল টি এই পর্যন্ত ই। শেষ পর্যন্ত পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম বিস্তারিত

Leave a Reply