Citytouch Online Registration | সিটি টাচ অ্যাপ থেকে সিটি ব্যাংকে একাউন্ট খোলার নিয়ম

You are currently viewing Citytouch Online Registration | সিটি টাচ অ্যাপ থেকে সিটি ব্যাংকে একাউন্ট খোলার নিয়ম
Citytouch Online Registration সিটি টাচ অ্যাপ

Citytouch Online Registration | সিটি টাচ অ্যাপ থেকে সিটি ব্যাংকে একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

সিটি টাচ কি?

সিটি টাচ- সিটি ব্যাংকের একটি অনলাইন ভিত্তিক সেবা। সিটি ব্যাংক গ্রহকদের সেবা সহজকরণার্তে ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা চালু করেছে। সিটি ব্যাংকের এ সেবা স্মার্টফোন দিয়ে উপভোগ করতে পারবেন। সিটি চাচ এ্যাপ ব্যবহার করে আপনি যে কোন ধরণের সেবা গ্রহণ করা যায়। সেজন্য আপনার সিটি টাচ একাউন্ট লাগবে। নিচে আমরা সিটি চাচের একাউন্ট খোলা ও রেজিষ্ট্রেশন করার নিয়ম আলোচনা করব।

CityTouch এর সেবা সমৃহ।

সিটি ব্যাংকের একজন গ্রাহক CityTo

দিয়ে অতি সহজে সিটি ব্যালকের সেবা সমূহ নিতে পারবে।

  1. আপনি কোন দোকানে গেলেন, কেনাকাটার জন্য টাকা প্রয়োজন। কিন্তু টাকা সাথে আনেন নি। আপনি সিটি টাচের দিয়ে কেনাকাটা করতেন পারবেন।
  2. বিমানের টিকিট কিনতে পারবেন সিটি চাচ দিয়ে।
  3. মোবাইল ফোনের বিলও দিতে পারবেন।
  4. ক্রেডিট কার্ড বিল দিতে পারবেন।
  5. স্কুলের বেতন দিতে পারবেন।
  6. তহবিল হস্তান্তর করা যায় সিটি টাচ দিয়ে।
  7. আপনার চলতি সঞ্চয়ী।স্থায়ী আমানত বা ঋণ হিসাব দেখতে পারবেন।

NexusPay নেক্সাস পে সুবিধা কি ও কিভাবে নেক্সাস পে রেজিস্ট্রেশন করবেন

আপনি সিটি ব্যাংকের সিটি টাচ ব্যবহার করে অনলাইন ব্যালকের এ সুবিধাগুলো উপভোগ করতে পারবেন।

ডিপিএস ও এফডি হিসাবে CityTouch।

ডিপিএস ও এফডি হিসাব খুলতে সিটি টাচ ব্যবহার করা যায়। এর বেশ কয়েকটি সুযোগ সুবিধা রয়েছে। নিচে উল্লেখ করা হল।

  1. সিটি ব্যাংকের কোন শাখায় না গিয়ে, ঘরে বসে সিটি টাচ দিয়ে Dps প FD হিসাব খুলতে পারবেন।
  2. ৯০% ঋণ সুবিধা গ্রহন করা যায়
  3. সিটি টাচের প্রক্রিয়া তুলানামূলক সহজ।

CityTouch পজেটিব পে ইন্সট্রাকশন।

  1. সিটি টাচে চেকের বদলে বা সাথে পজেটিব পে ইন্সট্রাকশন দেওয়া যায়।
  2. সময় বাচবে।
  3. প্রক্রিয়া সহজ।

CityTouch এ ইমেইল দিয়ে টাকা প্রেরণ ও গ্রহন।

সিটি টাচে ইমেইলের মাধ্যমে টাকা প্রেরণ ও গ্রহন করা যায়।

  1. সিটি ব্যাংকে কারো একাউন্ট না থাকলেও, তাকে সিটি টাচ ব্যবহার করে ইমেইলে টাকা পাঠানো যাবে।
  2. প্রাপক তার পছন্দ ও সুবিধা অনুযায়ী টাকা যেকোনো একাউন্টে রাখতে পারবেন।
  3. সিটি টাচ প্রক্রিয় সহজ।

সিটি টাচ দিয়ে টাকা পাঠনো cash by code ব্যবহার করে।

  1. খুব দ্রুত সময়ে টাকা পাঠানো যায়।
  2. গ্রাহকও খুব সহজে টাকা উাঠানো বা প্রত্যাহার করতে পারে।
  3. প্রক্রিয়াও খুব সহজ।

সিটি টাচ অ্যাপ রেজিষ্ট্রেশন করার নিয়ম।

  1. সিটিটাচে রেজিষ্ট্রেশন করতে প্রথমে গুগুল প্লে থেকে।
  2. Citytouch app ইন্সটল করুন।
  3. তারপর সিটিটাস অ্যাপটি অপেন করার পর Sign in এ ক্লিক করুন।

একাউন্ট দিয়ে অথবা ডিবিট কার্ড দিয়ো সিটিটাচ একাউন্ট খুলতে পারবেন। আমরা একাউন্ট নম্বর দিয়ে সিটিটাচ এপটি ওপেন করব।

1..একাউন্ট নম্বর দেন।

2. একাউন্ট নম্বর দিবার পর আপনার যাবতীয় তথ্য আসবে।

3. শুধু মোবাইল ও ইমেইল পুনরায় বসাতে হবে।
4. ইউজার আইডি যেকোন একটি দিয়ে টার্মস এন্ড কন্ডিশনে এগ্রী করুন।

5. ওটিপির জন্য ইমেইল বা মোবাইল নম্বর দিয়ে Next বাটনে ক্লিক করুন।
6. ওটিপিটি বসিয়ে Next এ ক্লিক করুন।
7. ক্রেডিট কার্ড এড করতে চাইলে করতে পারেন।
8. তারপর আপনাকে অভিনন্দন জানানো হবে।
9. আর ইমেইলের মাধ্যমে ইউজার আর আইডি পাঠানো হবে।

সিটি টাচ ফান্ড ট্রান্সফার লিমিট।

একটি সিটিটাচ একাউন্টে প্রতিদিন ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত টাকা ট্রান্সফার করা যাবে।

  1. সিটি ব্যাংকের একাউন্টে প্রতিবার সর্বোচ্চ ৫ লক্ষ টাকা পাঠানো যায়।
  2. RTGS এর দিয়ে সর্বোচ্চ ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ট্রান্সফার করা যাবে।
  3. BEFTN দিয়েও প্রতিবার সর্বোচ্চ ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ট্রান্সফার করা যাবে।
  4. NPSB দিয়ে প্রতিবার সর্বোচ্চ ৩ লক্ষ টাকা ট্রান্সফার করা যাবে।

Citytuch Official Website

Leave a Reply