You are currently viewing ব্র্যাক ব্যাংক লোন পদ্ধতি এবং সুবিধা সমূহ | Brac Bank Loan System

ব্র্যাক ব্যাংক লোন পদ্ধতি এবং সুবিধা সমূহ | Brac Bank Loan System

ব্র্যাক ব্যাংক লোন: (Brac Bank) একটি নামকরা ব্যাংক। ব্রাক ব্যাংক একটি জনকল্যাণমুলক ব্যাংক। ব্র্যাক ব্যাংকের রয়েছে হাজার হাজার গ্রাহাক। গ্রাহকের বিভিন্ন চাহিদার কথা লক্ষ করে ব্রাক ব্যাংক কাজ করে যাচ্ছে। গ্রাহকের চাহিদা মেটাতে ব্র্যাক ব্যাং লোন দিয়ে থাকে। এই আর্থিক প্রতিষ্ঠানটি ব্যক্তি ও প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে ঋণ সুবিধা দিয়ে থাকে। দেশের ক্রমবর্ধমান গ্রহকদের পৃথক ১৪টি ঋণসেবা রয়েছে ব্রাক ব্যাংকের।

ব্র্যাক ব্যাংক লোন

আপনি যদি ব্র্যাক ব্যাংক একজন গ্রাহক হন, সেখান থেকে লোন নিতে চান। তাহলে ব্রাক ব্যাংকের লোন পদ্ধতি কি? ব্র্যাক ব্যাংকের লোন সুবিধা কি? এবং কি কি শর্ত রয়েছে? ব্র্যাক ব্যাংকের লোন পদ্ধতিতে কি কি লিমিটেশন আছে? আমরা আমাদের আজকের আর্টিকেলে তুলে তা ধরব।

ব্রাক ব্যাংক হোম বা বাড়ি লোন:

ব্র্যাক ব্যাংকের অন্যতম লোন হচ্ছে, ব্রাক ব্যাংক হোম বা বাড়ি লোন। আপনি যদি লোন নিয়ে বাড়ি তৈরি করতে চান, তাহলে এই লোন পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন। হোম বা বাড়ি লোনের অনেক সুবিধা রয়েছে।

ব্র্যাক ব্যাংক হোম লোনের সুবিধা:

  • হোম লোনের ক্ষেত্রে আপনি ব্র্যাক ব্যাংক থেকে সর্বোচ্চ ২ কোটি লোন নিতে পারবেন।
  • ব্রাক ব্যাংকের লোনে ২০% সুদ দিতে হয়।
  • ব্রাক ব্যাংকের হোম লোন সর্বোচ্চ ২০ বছরের মধ্যে পরিশোধ করতে হয়।
  • মোট যে লোন দেওয়া হয় তার ২% প্রসেসিং ফি হিসাবে কেটে নেওয়া হয়।

ব্র্যাক ব্যংক হোম লোনের যোগ্যতা:

সবকিছুরই কিছু শর্ত রয়েছে। যোগ্যতা থাকতে হয়।BRAC Bank Loan ব্রাক ব্যাংকের লোন নেবারও কিছু যাোগ্যতা রয়েছে। ব্রাক ব্যাংকের হোম লোনের যে সব রিকুরমেন্ট বা যোগ্যতা রয়েছে, নিচে আমরা তুলে ধরেছি।

  • লোন গ্রহীতার বয়স সর্বনিম্ন ২৫ বছর হতে হবে।
  • ঋণ গ্রহীতার বয়স সর্বোচ্চ ৬৫ বছর হতে হবে।
  • ব্রাক ব্যংক লোন মূলত বিজনেস ওনার, প্রাইভেট কোম্পানির অনার, পার্টনারশিপ বিজনেস কম্পানির মেনেজার লোন নিতে পারবেন।
  • মাসিক ইনকাম ন্যূনতম ৩০ হাজার হতে হবে।

ব্র্যাক ব্যাংক লোনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র।

ব্রাংক ব্যংকের হোম লোনে যেসব কাগজপত্র প্রয়োজন,

  • সর্বশেষ একবরের ব্যাংকের লেনদেন নথিপত্র অর্থাৎ স্টেটমেন্ট।
  • সর্বশেষ কর প্রদানের দলীল দস্তাবেজ।
  • NID বা পাসপোর্টের ফটোকপি
  • একবছরের স্যালারির কাগজপত্র বা স্টেটমেন্ট।
  • অংশীদার কম্পানি থাকলে তার নথিপত্র।
  • পেশাদার থাকলে তার দলীল।
  • মালিকানার চুক্তি।

ব্র্যাক ব্যাংক স্যালারি লোন :

একজন স্থায়ী বেতনভুক্ত চাকরিজীবী স্যালারি লোন সুবিধা নিতে পারবেন।

ব্র্যাক ব্যাংক স্যালারি লোনের সুবিধা

স্যালারি ব্যাংকের অনেক সুবিধা রয়েছে। আপনি একজন ব্রাংক ব্যাংকের গ্রাহক হিসাবে এগুলো জানা আবশ্যক।

  • আবেদনকারীর বেতনের ১৫ গুণ পর্যন্ত ঋণ দেওয়া হয়
  •  সুদের হার ১৯ শতাংশ থেকে ১৯.৫ শতাংশ।
  • ১২ থেকে ৬০ মাস মেয়াদে সমান কিস্তিতে ঋণ পরিশোধ করা যাবে।

যেকোনো চাকরিজীবী স্যালারি লোন ব্র্যাক ব্যাংকের মাধ্যমে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন।

স্যালারি লোনের যোগ্যতা:

  • আবেদনকারীর মাসিক বেতন নিম্নে ১২ হাজার টাকা হতে হবে।
  • বিদ্যমান সুদের হার থেকে ১%  ছাড় পাবে গ্রহীতা।
  •  আবেদনকারীকে সর্বশেষ ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট , বেতনের রশিদ জমা দিতে হবে
  • জাতীয় পরিচয়পত্র ও এক বছরের চাকরির অভিজ্ঞতার কাগজপত্র ব্যাংকে জমা দিতে হবে।
  • এ ছাড়া ১৫ শতাংশ প্রসেসিং ফি ও ঋণের অর্থের ওপর  দিতে হবে।
  • অগ্রিম ফি দিতে হবে 1% থেকে 2% রেটে।

ব্র্যাক ব্যাংক অটো লোন :

ব্র্যাক ব্যাংক অটো লোন বা ঋণ নিয়ে নতুন গাড়ি কিনতে পারবেন।শুধু তাই নয় রিকন্ডিশন্ড গাড়ি কিনতে পারবেন।যদি অটো লোন গাড়ি কিনতে চাইলে ব্ যে কারো জন্য হতে পারে সহজ সমাধান।

অটো লোনের সুবিধা

  • অটো ঋণের পরিমাণ গাড়ির মূল্যের ৯০ শতাংশ।
  • সর্বোচ্চ ২০ লাখ টাকা ।
  • এক থেকে পাঁচ বছর মেয়াদে পরিশোধ করা যাবে।

অটো লোনের জন্য যা প্রয়োজন

  • সুদের হার ১৫ থেকে১৬ শতাংশ হয়।
  • মাসিক ২৫ হাজার টাকার কর্মকর্তা।
  • এবং ৩৫ হাজার টাকা উপার্জনক্ষম ব্যবসায়ী, স্বনির্ভর ও জমির মালিকরা ব্রাক ব্যাংকে অটো লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।
  • বয়সসীমা ২১ থেকে ৬৫ বছর পর্যন্ত।
  • গত এক বছরের ব্যাংক স্টেটমেন্ট।
  • গাড়ির মূল্য বিবরণী,জমা দিতে হবে
  • ব্যক্তিগত টিআইএন সনদপত্র জমা দিতে হবে।
  • বেতনের রসিদ জমা দিতে হবে।
  • ট্রেড লাইসেন্স (ব্যবসায়ীর জন্য)জমা দিতে হবে।
  • মেমোরেন্ডাম অফ আর্টিকেল  জমা দিতে হবে।

ব্রাংক ব্যাংক পারসোনাল লোন।

আপনি যদি কোন ব্যাক্তিগত কাজ করতে চান, একজন্য অর্থকারীর প্রয়োজন পড়ে। তাহলে আপনি ব্রাক ব্যাংকে পারসোনাল বা ব্যাক্তিগত লোন নিতি পারেন।

পার্সোনাল লোনের সুবিধা :

ব্যাক্তিগত লোনের অনেক সুবিধা রয়েছে। গ্রাহকদের সুবিধার্থে কিছু উল্লেখ করা হলো।

  • সর্বনিম্ন ২০ হাজার টাকা লোন মিতে পারেন।
  • সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা লোন নিতে পারেন।
  • নিরাপত্তার জন্য জামানত শর্ত নয়।
  • ১ বছর থেকে ৫ বছর পর্যন্ত সময়ে ঋণ পরিশোধ করতে পারবেন।
  • ব্রাক ব্যাংকের প্রসেসিং ফি ২%।

ব্র্যাক ব্যাংকের পারসোনাল লোনের যোগ্যতা।

  • যে পারসোনাল লোন নিতে চায়, তার মাসিক বেতন কমপক্ষে ২৫ হাজার হতে হবে।
  • ব্যাবসায়ী হলে তিন বছরের অভিজ্ঞতা থলতে হবে।
  • চাকুরিজীবীর ক্ষেত্রে ১ বছরের অভিজ্ঞতা প্রযোজ্য।

প্রয়োজনীয় নথিপত্র:

  • Nid কার্ডের ফটোকপি
  • পাসপোর্ট সাইজের ছবি ১ কপি
  • বিগত ছয় মাসের ব্যাংক হিসাব।
    ট্রেড লাইসেন্স।

ব্র্যাক ব্যাংক কার লোন:

ব্রাক ব্যাংকের লোনের মাধ্যমে কার কিনা যায়। কার কিনতে ব্রাক ব্যাংক আপনার সাথে আছে। তবে কিছু যোগ্যাতা ও শর্ত সাপেক্ষে আপনি ব্রাক ব্যাংকের কার লোন পাবেন।

কার লোনের সুবিধা

কার ক্রয়ের ক্ষেত্রে ব্রাক ব্যাংক আপনাকে সর্বোচ্চ ৪০ লক্ষ টাকা লোন দিবে। আপনি যদি বেশ দামি কার করতে চান তাহলে ব্রাক ব্যাংক ৫0% ব্যয় বহন করবে। তাছারা প্রসেসিং ফি ২% নিবে ব্রাক। সবচেয়ে বড় সুবিধা আপনি এই লোন ১২ মাস থেকে ৬০ মাসের ভিতরে পরিশোধ করতে পারবেন।

কার লোন নিতে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র।

কার লোন নিতে হলে

  • NID এর ফটো কপি।
  • পাসপোর্ট সাইজ ছবি রঙ্গিন।
  • বিগত একবছরের ব্যাংক হিসাব
    ট্রেড লাইসেন্স।

ইসলামী এবং সোনালী ব্যাংক লোন পদ্ধতি

ইসলামী ব্যাংক লোন পদ্ধতি ২০২২

সোনালী ব্যাংক লোন পদ্ধতি ২০২২

আপনার যে লোন ভালো লাগে সেটি নিন। যেটার প্রয়োজন সেটা নিন। ধন্যবাদ।

 

Please Share this article

Leave a Reply