You are currently viewing জন্ম নিবন্ধন যাচাই, অনলাইন আবেদন, সংশোধন, নিবন্ধন ফরম | Online Birth Certificate Registration, Checking, Correction

জন্ম নিবন্ধন যাচাই, অনলাইন আবেদন, সংশোধন, নিবন্ধন ফরম | Online Birth Certificate Registration, Checking, Correction

জন্ম নিবন্ধন বর্তমানে বাংলাদেশে একটি টপিক খুব বেশি চলতেছে সবার মধ্যে সেটি হলো জন্ম নিবন্ধন সনদ বর্তমানে অনলাইনে নিতে হবে। জন্ম নিবন্ধন যাচাই এবং অনলাইনে আবেদন সকল তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করব।

সবার স্কুল কলেজে জন্ম নিবন্ধন সনদ কপি জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আর এই জন্ম নিবন্ধন সনদটি অনলাইনে থাকতে হবে। এখন সমস্যা হল আমরা ছোট বড় কারোও জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইনে নয়। তাই আজ এই পোস্টে কিভাবে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইনে নিবেন, কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সনদে কোন ভুল থাকে তাহলে কিভাবে সংশোধন করবেন, এবং জন্ম নিবন্ধন পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড, কিভাবে করবেন সব কিছু আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

এখন বর্তমানে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইনে নিতে হলে সর্ব প্রথম আপনার পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে হবে তারপর আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে নিতে পারবেন

জন্ম নিবন্ধন কি?

নিবন্ধন সনদ হল জন্ম এবং মৃত্যুর নিবন্ধন আইন, ২০০৪ সালের ২৯ নাম্বার আইনের আওতায় প্রতি মানুষের নাম জন্ম তারিখ, লিঙ্গ, পিতার নাম, মাতার নাম, জন্ম স্থান, এবং জাতীয়তা, সম্পূর্ণ ঠিকানা নির্ধারিত নিবন্ধক কর্তৃক সরকারি রিজিস্টারে লিখে রাখা বা কম্পিউটারে এন্ট্রি প্রধান এবং জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রদান করা।

এককথায় বলা হয় শিশু জন্ম হওয়ার পর এ শিশুর নাম ঠিকানা জন্ম তারিখ পিতার নাম মাতার নাম সম্পূর্ণ তথ্য সরকারি খাতায় নাম রিজিস্টারী করাকে জন্ম নিবন্ধন বলা হয়। আর প্রয়োজনীয় সব তথ্যকে জন্ম সনদ বলা হয়।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন কিভাবে করবেন।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন করতে সর্ব প্রথম আপনাকে bdris.gov.bd এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন। অথবা এখানে ক্লিক করুন

এটি হল অনলাইন জন্ম নিবন্ধনের ওয়েবসাইটর প্রথম পেইজ।

আপনি জন্ম নিবন্ধন সনদ কোথায় থেকে সংগ্রহ করতে চান সেটি নির্বাচন করুন। আপনার সনদ জন্মস্থান অথবা আপনার ঠিকানায় কিংবা যেকোনো স্থান থেকে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ সংগ্রহ করতে পারবেন।

  • যখন প্রথম ধাপ পূরণ করবেন পরবর্তী পেইজে আপনার সকল তথ্য দেওয়ার জন্য প্রর্দশিত হবে। আর এই সকল তথ্য আপনি সঠিক ভাবে সাবধানে পূরণ করবেন যাতে করে কোন ভুল না হয়। আপনি এই নিজে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করতে পারবেন।
  • জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করতে যে সকল বিষয় আপনাকে সঠিক ভাবে জানতে হবে।
  • প্রথমে জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম বাংলায় এবং পরবর্তীতে ইংরেজিতে পূরণ করার পর প্রয়োজনীয় সকল কি পুনরায় সম্পাদনা করার পর সংরক্ষণ বটমে ক্লিক করবেন।
  • যখন আপনি আপনি সংরক্ষণে ক্লিক করবেন তখন আপনার সব তথ্য আবেদনটি নিবন্ধন কর্যালয়ে সাথে সাথেই চলে যাবে আপনি আর সংশোধন করতে পারবেন না। তাই আপনার সকল তথ্য দেওয়ার পর একবার ভালো ভাবে সব কিছু ঠিক আছে কি না দেখে নিবেন।
  • পরের ধাপে আপনি প্রিন্ট করতে হবে আপনি যখন জন্ম নিবন্ধন সনদটির জন্য প্রিন্ট বটমে ক্লিক করার পর আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের মুদ্রিত কপি আপনে পেয়ে যাবেন।

১৫ দিনের মধ্যে আপনি এই আবেদন পত্রের প্রত্যয়ন কপি সংগ্রহ করে এবং প্রয়োজনীয় সব প্রমান  সত্যায়িত করে সেই কপি নিয়ে নিবন্ধক অফিসে যোগাযোগ করবেন। আপনার জন্ম নিবন্ধন এসেছে কিনা, সাধারণত ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আপনারা জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইনে এসে যায় চাইলে আপনি নিজে চেক করে অনলাইনে ডায়োনলোড করে নিবেন। কিভাবে পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করবেন একটু পরে আলোচনা করব।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন এর জন্য গুগল গিয়ে (জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন) এই শিরোনামটি লিখে সার্চ করবেন এই শিরোনামে একটি ওয়েবসাইট রয়েছে সেই ওয়েবসাইটটি আপনার ‌সামনে দেখতে পাবেন ওয়েবসাইটে ক্লিক করবেন।তখন আপনি দুটি বক্স দেখতে পাবেন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের এই ওয়েবসাইটে জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের প্রথম বক্সে আপনার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার সঠিক ভাবে দিবেন তার পরের বক্সে আপনার জন্ম তারিখ বসাবেন। আপনার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম নিবন্ধন থাকা তারিখ বসানোর পর সার্ভারে থাকা আপনার জন্ম নিবন্ধন সকল তথ্য আপনার সামনে চলে আসবে।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের ওয়েবসাইট সব তথ্য সঠিক ভাবে দেওয়ার পর জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের সকল তথ্য প্রর্দশিত হবে যে কিভাবে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে হবে আপনাকে। এই তথ্য অনুসারে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের শর্ত ও নিয়মাবলি।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করা হয় যখন জন্ম নিবন্ধন সনদে কোন ভুল থাকে, এক্ষেত্রে কিছু নিয়মাবলী অনুসরণ করতে হবে যদি আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে চান নিয়মাবলী এবং শর্তগুলো নিচে দেওয়া হল।

১. যদি আপনার পিতা বা মাতার নাম সংশোধনের প্রয়োজন হলে এক্ষেত্রে যদি তাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইনে থাকে তাহলে সর্ব প্রথম তাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ নাম্বার দিয়ে প্রথমে তাদের নাম সংশোধন করতে হবে।

২. যদি আপনার পিতা বা মাতার জন্ম নিবন্ধন সনদ না থাকে। এবং তাদের যদি জন্ম ০১/০১/২০০০ এর পূর্বে হয় তাহলে আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের ফরমে তাদের জন্ম তারিখ বা নাম সংশোধন করতে পারবেন। তবে মনে রাখবেন তাদের জন্ম ২০০০ সালের পূর্বে হতে হবে এবং অনলাইনে তাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ যদি না‌ থাকে এক্ষেত্রে আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে পারবেন।

৩. আপনার পিতা বা মাতার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকে এবং যদি তাদের মৃত্যু হয়ে গেলে তাদের জন্ম তারিখ ০১/০১/২০০০ সালের পরে হলেও আপনার পিতা মাতার নাম সংশোধন করা যাবে। এক্ষেত্রে আপনার পিতা বা মাতার মৃত্যুর প্রমাণপত্র সাথে দিতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কিভাবে করবেন। আপনার যদি জন্ম নিবন্ধন প্রথমে অনলাইনে নিয়ে থাকেন তাহলে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইনে পাওয়া যাবে এবং আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন থেকে পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড ও করতে পারবেন। আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করতে হলে সর্ব প্রথম আপনাকে এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে www.bdris.gov.bd/br/search এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন এবং আপনার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার দিন তার পর আপনার জন্ম তারিখ দিয়ে সার্চ ক্লিক করুন। আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ দেখতে পাবেন। এভাবে আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম

জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ করার জন্য everify.bdris.gov.bd/ এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে সর্ব প্রথম আপনার সকল তথ্য পূরণ করতে হবে তারপর আপনাকে এই ফরমটি প্রিন্ট করতে পারবেন শুধু জন্ম নিবন্ধন ফরম খালি ডাউনলোড করতে পারবেন না, সব কিছু পূরণ করে জন্ম নিবন্ধন ফরম প্রিন্ট করে নিবেন।

জন্ম নিবন্ধন চেক

জন্ম নিবন্ধন চেক করার জন্য আপনার ফোনের ব্রাউজার ওপেন করে bdris.gov.bd সার্চ করুন। এবং প্রর্দশিত বক্সের মধ্যে আপনারা জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিয়ে অনুসন্ধান করুন।

 

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড

গুগল জন্ম নিবন্ধন রেজিস্ট্রারী কার্যালয়, লিখে সার্চ করলে br.lgd.gov.bd নামে একটি ওয়েবসাইট আপনার সামনে আসবে এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করার পর উপরে Birth Certificate নামের অপশনে ক্লিক করে আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিয়ে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে পারবেন।

This Post Has One Comment

Leave a Reply