সময়ের মূল্য রচনা (Somoyer Mullo Rochona)

You are currently viewing সময়ের মূল্য রচনা (Somoyer Mullo Rochona)

সময়ের মূল্য রচনা ভূমিকা: জ্ঞানীরা বলেন, সময় ও নদীর স্রোত কারো জন্য অপেক্ষা করে না। সময় অমূল্য সম্পদ।তা নদীর স্রোতের মত প্রবহমান। সময় একবার চলে গেলে তা আর কোনদিনই ফিরে আসে না। মানবজীবন সংকীর্ণ।এ অল্প জীবনে মানুষকে অসংখ্য কাজ করতে হয়। তাই আমাদের দৈনন্দিন জীবনে উন্নতি করতে হলে অসংখ্য কাজ করতে হবে।

সময়ের মূল্য বা সদ্ব্যবহার কী:

সময়ের মূল্য বা সদ্ব্যবহার কী: একটা কাজ যথাসময়ে সম্পাদন করার নাম ই সময়ের মূল্য বা সময়ের সদ্ব্যবহার। কোন কাজ পরে করার জন্যে ফেলে রাখা উচিত নয়। তাহলে সে কাজ আর কখনও করা হবে না। নদী যেমন ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জলবিন্দুর সমষ্টি, আমাদের জীবন ও সেরূপ কতগুলো মূহূর্তে র সমষ্টি। আমাদের জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত মূল্যবান। সময়ের মূল্য দিলে আমরা জীবনে উন্নতি করতে পারবো।

সময়ের মূল্য রচনা

সময়ের গুরুত্ব:

সময়ের গুরুত্ব: সময় আসলে অমূল্য সম্পদ তা একবার চলে গেলে কোটি কোটি টাকার বিনিময়েও ফিরে পাওয়া যায় না। সময় তার পথ ধরে আবিরাম চলতে থাকে। প্রতিটি মূহুর্তকে যত সুন্দর ভাবে কাজে লাগাব আমাদের জীবন তত বেশি সুন্দর হবে।

ইতিহাসে পর্যালোচনা করলে দেখা যায় , পৃথিবীতে যারা মহান হয়ে আছেন তাঁদের সকলেই সময়নিষ্ঠ। আবার প্রতিভাবান ব্যক্তি সময়ের অপচয় এর কারনে কালের করালগ্রাসে হারিয়ে গেছেন।

সময় ই সম্পদ; “সময় ই অর্থ” এখানে অর্থ বলতে সম্পদ কে বুঝানো হয়েছে।মানব জীবনকে সফল ও সার্থক করে তুলতে হলে এ অমূল্য সম্পদ সময়ের সদ্ধ্যবহার করা একান্ত প্রয়োজন। খেলাধুলায় ও অবহেলায় এ মূল্যবান সময়কে নষ্ট করা উচিত নয়।

ছাত্র জীবনে সময়ের সদ্ধব্যহার:

ছাত্র জীবনে সময়ের সদ্ধব্যহার: ছাত্রজীবনে সময়ের সদ্ধব্যহারের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। ছাত্রজীবনে পড়ার সময় পড়া এবং খেলার সময় খেলা এ নিয়ম মেনে চলা উচিত। এতে পরবর্তী জীবনে সময়নিষ্ঠা এবং জীবন এ উন্নতি করা যায়।

সময়ের সদ্ধ্যবহার করার উপায়:

সময়ের সদ্ধ্যবহার করার উপায়: সময়ের সদ্ধ্যবহার করতে হলে আমাদেরকে আলস্য ,বিলাসিতা ও অযথা সময় নষ্ট না করে একান্তভাবে কর্মসম্পাদনে মনোনিবেশ করতে হবে। এজন্য তোমাকে পাঁচটি বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে।

  • ১, সময়নিষ্ঠা= সময়ের কাজ সময়ে করা।
  • ২, নিয়মনিষ্টি= নির্দিষ্ট সময়ের কাজ যথানিয়মে সম্পাদন করা।
  • ৩, স্বাস্থ্যরক্ষা= শরীরের সুস্থতার দিকে নজর রেখে যথাসম্ভব কার্য সম্পাদন করা।
  • ৪, কর্মসাধন, বিশ্রাম। তাই কাজের পরিমাণ বিবেচনা করে সময়কে ভাগ করে নিলে ঠিক সময়ে কাজ শেষ করা সম্ভব হবে।

সময়ের অপব্যবহার এর কুফল:

সময়ের অপব্যবহার এর কুফল: সময়ের অপব্যবহারকারীরা পরিমাণে দুঃখ ভোগ করে। বৃথা সময় নষ্টকারী জীবন কখনোই উন্নতি করতে পারে না।যেসব শিক্ষার্থী অলস ভাবে সময় নষ্ট করে তারা পরীক্ষায় ভালো ফল করতে পারে না।যেকৃষক সময়মতো জমি চাষ করে বীজ বপন করে না ,সে কখনও ভালো ফসল আশা করতে পারেনা।যে জাতি সময়কে মূল্যায়ন করে না সে জাতির ধ্বংস অনিবার্য।

সময়নিষ্ঠ ব্যক্তির দৃষ্টান্ত

সময়নিষ্ঠ ব্যক্তির দৃষ্টান্ত: পৃথিবীতে যেসব মহৎপ্রান ব্যক্তি কর্মনিষ্ঠার মাধ্যমে আত্মপ্রতিষ্টা ও মানবকল্যাণে বিশেষ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয়েছেন তাঁদের সবাই ছিলেন সময়নিষ্ঠ। জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত তাঁদের নিকট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আব্রাহাম লিংকন, আইনস্টাইন, এরিস্টটল, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর প্রমুখের জীবনী পাঠ করলে দেখা যায় তাঁরা জীবনে এতটুকু সময় অপচয় করেন নি।

উপসংহার:

উপসংহার: পরিশেষে বলা যায় সময় এর গুরুত্ব অপরিসীম ।ব্যক্তিগত জীবনে ও জাতীয় জীবনে সময় অপেক্ষা মূল্যবান সম্পদ আর নেই। আমাদের প্রত্যেকের ই সময়ের মূল্য সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে এবং সময়ের সদ্ব্যবহার এর মাধ্যমে জীবনকে সার্থক ও সুন্দর করে গড়ে তুলতে হবে।

Mahfujur Rahman

Mahfujur Rahman is the founder of this Blog. He is a Professional Blogger and SEO Expert, who is interested in SEO, Web Programming. If you need any information related to this website, then you can feel free to ask here. It is our aim that you get the best information on this blog.

Leave a Reply