ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য ২০২২-২০২৩ | Dhaka University Admission | DU Admission 2023

You are currently viewing ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য ২০২২-২০২৩ | Dhaka University Admission | DU Admission 2023
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য

আপনি যদি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার স্বপ্ন থাকে তাহলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য এই পোস্টটি আপনাকে Dhaka University Admission দিতে অনেক হেল্প করবে। কারন এই আর্টিকেলে ঢাকা ইউনিভার্সিটির ভর্তি পরীক্ষা সম্পর্কে বিস্তারিত গাইড দেওয়া হবে যেমন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ম, পরিক্ষার মানবন্টন, সকল ইউনিটের ভর্তি তথ্য কোন ইউনিটে ভর্তি হতে কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন, DU Admission Point কত প্রয়োজন হবে বিস্তারিত।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের সর থেকে প্রাচীন এবং সুনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, তাই উচ্চমাধ্যমিক পাশ করার পর বাংলাদেশের সকল শিক্ষার্থীদের স্বপ্ন থাকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার। কিন্তু কথা হল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এডমিশন নেওয়া অনেক কঠিন হয়ে পড়ে অনেকর জন্য, কারন প্রায় দেশের লক্ষাধিক শিক্ষার্থীরাই ভর্তির জন্য আবেদন করে এর মধ্যে চারটি ইউনিটে মোট ৭১৪৮টি সিট থাকে, তাই অনেক কম্পিটিশন হয়, তবে এটি সহজ হয় যখন আপনার প্রস্তুতি সবার থেকে ভালো থাকবে। ইচ্ছা সবকিছুকেই সহজ করে দিতে পারে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের সময়সীমা ২০২২-২৩

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন শুরু হব ২৭শে ফেব্রুয়ারি থেকে এবং ঢাবিতে আবেদন করতে পারবেন ২০ মার্চ পর্যন্ত।ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার এডমিট কার্ড ১৮ এপ্রিল থেকে সংশ্লিষ্ট ইউনিটের পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা পূর্ব পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন।

ঢাবি ভর্তি পরীক্ষা ২০২৩ কবে অনুষ্ঠিত হবে?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২২-২৩ ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২৯ এপ্রিল ২০২৩ থেকে শুরু হবে। ঢাকা ইউনিভার্সিটির চারটি ইউনিটের অধীন এই পরীক্ষা শেষ হবে আগামী ১৩ মে ২০২৩।


একনজরে ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা শুরু ২৯ এপ্রিল!
ক- ইউনিট: ১২ মে ২০২৩
খ- ইউনিট: ৬ মে ২০২৩
গ- ইউনিট: ১৩ মে ২০২৩
চ- ইউনিট: ২৯ এপ্রিল ২০২৩

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার নিয়ম মানবন্টন সম্পর্কে বিস্তারিত সম্পূর্ণ পড়ুন।

আপনি যদি এখন থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা সম্পর্কে প্রস্তুতি শুরু করে নিতে পারেন তাহলে আপনার জন্য একদম পানির মতো মনে হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির নিয়মাবলী প্রতি বছর একটু আকটু পরিবর্তন করে থাকে তাই ভর্তি বিষয়ে সকল খুঁটিনাটি তথ্য আপনাদের কাছে শেয়ার করব আমাদের সাথে শেষ পর্যন্ত থাকুন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার নিয়ম:

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা শুধু এমসিকিউ প্রশ্ন থাকলেও ২০১৯ এবং ২০২০ শিক্ষাবর্ষ থেকে Dhaka University admission নতুন নিয়ম চালু করা হয়েছে উক্ত শিক্ষাবর্ষ থেকে MCQ এর পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষার নতুন নিয়ম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির নিয়মে সংযুক্ত করা হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন:

ভর্তি পরীক্ষার পূর্ণমান করা হয় ১০০ নাম্বার। এসএসসি ও এইচএসসি ফলাফলের উপর যে ৮০ নাম্বার থেকে কমিয়ে ২০ আনা হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায়। এবং MCQ পরীক্ষার নম্বর ৬০ নম্বর ধার্য করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে লিখিত পরীক্ষার মোট নম্বর করা হয় ৪০ নাম্বার। Dhaka University Admission Exam Time for MCQ ও লিখিত পরীক্ষার জন্য আলাদাভাবে ৪৫ মিনিট বরাদ্দ করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার নোটিশ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন: ক ইউনিট

১০টি অনুষদ এবং ৩২টি বিভাগ নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক ইউনিট গঠিত। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় ক ইউনিটে কেবল বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা, অর্থাৎ যারা এইচএসসিতে বিজ্ঞান বিভাগে ছিল, কেবল তারাই অংশ নিতে পারবে।  

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক ইউনিট মানবন্টন (MCQ):

পদার্থ বিজ্ঞান (আবশ্যিক)   ১৫ নম্বর
রসায়ন (আবশ্যিক) ১৫ নম্বর
জীববিজ্ঞান ১৫ নম্বর
গনিত ১৫ নম্বর
বাংলা ১৫ নম্বর
ইংরেজি ১৫ নম্বর

এমসিকিউ পরীক্ষায় প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা হবে এবং তা বিষয়ভিত্তিক সমন্বয় করা হবে। একজন প্রার্থী যে ৪টি বিষয়ের প্রশ্নের উত্তর দিলে তার উপর নির্ভর করবে সে কোন বিভাগ/ইনস্টিটিউট এ ভর্তি হতে পারবে।

ঢাবি ক ইউনিট মানবন্টন (লিখিত):

পদার্থ বিজ্ঞান (আবশ্যিক) ১০ নম্বর
রসায়ন (আবশ্যিক) ১০ নম্বর
জীববিজ্ঞান ১০ নম্বর
গনিত ১০ নম্বর
বাংলা ১০ নম্বর
ইংরেজি ১০ নম্বর

আপনার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় আবশ্যিক বিষয়ের সাথে অন্য যেকোনো ২টি বিষয়সহ মোট ৪ টি বিষয় এর উপর আপনাকে পরীক্ষা দিতে হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন থেকে ১২০ নম্বরের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মেধা তালিকা নির্বাচন করা হবে। MCQ এবং লিখিত পরীক্ষা মিলে ১০০ নম্বর DU Admission Exam নির্ধারিত থাকবে আর বাকি ২০ নম্বর এসএসসি পরীক্ষায় ও চতুর্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জিপিএ ২ দিয়ে এবং এইচএসসি পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয়সহ  প্রাপ্ত জিপিএ ২ দিয়ে গুন করে এই দুটি পরিক্ষার যোগ ফল ১০০ নম্বরের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের সাথে যোগ করে মোট ১২০ নম্বরের উপর শিক্ষার্থীদের মেধা তালিকা নির্ধারণ করা হবে। আর মনে রাখবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার লিখিত পরীক্ষার অংশে কমপক্ষে ১২ নম্বর পেতে হবে। আর এমসিকিউ ও লিখিত উভয় পরীক্ষা মিলিয়ে সর্বমোট আপনার পাশ নম্বর ৪০ হতে হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার পাশ নম্বর

আপনাকে ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে ভর্তির জন্য প্রথমে এমসিকিউতে ২৪ নাম্বার পেতে হবে নতুবা লিখিত পরীক্ষার জন্য আপনি বিবেচিত হবেন না, আর লিখিত পরীক্ষার পাশ নাম্বার হল ১২ এবং মনে রাখবেন লিখিত এবং এমসিকিউ পরিক্ষায় ১০০ নাম্বার এর মধ্যে অবশ্যই আপনার ৪০ নাম্বার পেতে হবে আপনাকে না হয় আপনি বিবেচিত হবেন না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন: ইউনিট খ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খ ইউনিটের মধ্যে তিনটি অনুষদ এবং মোট ৩৪টি বিভাগ রয়েছে, তারা মানবিক বিভাগ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার জন্য আসবে তারা খ ইউনিটে পরিক্ষা দিতে পারবেন। আর তাই পরিক্ষার মানবন্টন হবে মানবিক বিষয়ের অনুযায়ী।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খ ইউনিট মানবন্টন (MCQ):

বাংলা ১৫ নম্বর
ইংরেজি ১৫ নম্বর
সাধারণ জ্ঞান৩০ নম্বর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এমসিকিউ পরীক্ষায় প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা হবে এবং তা বিষয়ভিত্তিক সমন্বয় করা হবে। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খ ইউনিট মানবন্টন (লিখিত):

বাংলা২০ নম্বর
ইংরেজি ২০ নম্বর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন: ইউনিট গ

গ ইউনিটে বানিজ্যিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষা দেওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। আর মানবন্টন হবে বানিজ্যিক সাবজেক্ট এর অনুসারে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ ইউনিট মানবন্টন (MCQ):

বাংলা১২ নম্বর
ইংরেজি ১২ নম্বর
হিসাব বিজ্ঞান১২ নম্বর
ব্যাবসায় নীতি ও প্রয়োগ১২ নম্বর
মার্কেটিং / ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং১২ নম্বর
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা

ঢাবি ভর্তি MCQ পরীক্ষায় প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা হবে এবং তা সকল বিষয়ভিত্তিক সমন্বয় করা হবে। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ ইউনিট মানবন্টন (লিখিত):

অনুবাদ বাংলা থেকে ইংরেজি ৫ নম্বর
অনুবাদ  ইংরেজি থেকে বাংলা৫ নম্বর
বিষয় ভিত্তিক সংক্ষিপ্ত প্রকাশ (ইংরেজি)৫ নম্বর
Precise writing৫ নম্বর
সংক্ষিপ্ত রচনা (বাংলা)৫ নম্বর
৫ টি আবশ্যিক বিষয় থেকে সংক্ষিপ্ত প্রশ্নের উত্তর ১৫ নম্বর
du admission 2023

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন থেকে ১২০ নম্বরের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মেধা তালিকা নির্বাচন করা হবে। MCQ এবং লিখিত পরীক্ষা মিলে ১০০ নম্বর DU Admission Exam নির্ধারিত থাকবে আর বাকি ২০ নম্বর এসএসসি পরীক্ষায় ও চতুর্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জিপিএ ২ দিয়ে এবং এইচএসসি পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয়সহ  প্রাপ্ত জিপিএ ২ দিয়ে গুন করে এই দুটি পরিক্ষার যোগ ফল ১০০ নম্বরের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের সাথে যোগ করে মোট ১২০ নম্বরের উপর শিক্ষার্থীদের মেধা তালিকা নির্ধারণ করা হবে। আর মনে রাখবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার লিখিত পরীক্ষার অংশে কমপক্ষে ১২ নম্বর পেতে হবে। আর এমসিকিউ ও লিখিত উভয় পরীক্ষা মিলিয়ে সর্বমোট আপনার পাশ নম্বর ৪০ হতে হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা ২০২২-২০২৩: ১২০ নাম্বারের ভিত্তিতে মেধা তালিকা নির্বাচন করা হবে!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন থেকে ১২০ নম্বরের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মেধা তালিকা নির্বাচন করা হবে। MCQ এবং লিখিত পরীক্ষা মিলে ১০০ নম্বর DU Admission Exam নির্ধারিত থাকবে আর বাকি ২০ নম্বর এসএসসি পরীক্ষায় ও চতুর্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জিপিএ ২ দিয়ে এবং এইচএসসি পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয়সহ  প্রাপ্ত জিপিএ ২ দিয়ে গুন করে এই দুটি পরিক্ষার যোগ ফল ১০০ নম্বরের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের সাথে যোগ করে মোট ১২০ নম্বরের উপর শিক্ষার্থীদের মেধা তালিকা নির্ধারণ করা হবে। আর মনে রাখবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার লিখিত পরীক্ষার অংশে কমপক্ষে ১২ নম্বর পেতে হবে। আর এমসিকিউ ও লিখিত উভয় পরীক্ষা মিলিয়ে সর্বমোট আপনার পাশ নম্বর ৪০ হতে হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন: চ ইউনিট

ঢাবি চ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২টি অংশে অনুষ্ঠিত হবে: সাধারণ জ্ঞান (৪০ নম্বর + অঙ্কন বা ফিগার ড্রয়িং (৬০ নম্বর) = ১০০ নম্বর।

সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষা:

এমসিকিউ পদ্ধতির পরীক্ষায় মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে বাংলা ও ইংরেজীসহ চারুকলার বিভিন্ন বিভাগ সম্পর্কিত বা বিষয় ভিত্তিক প্রশ্ন, শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি, ইতিহাস, ঐতিহ্য, সমসাময়িক ঘটনাবলি প্রভৃতি বিষয় প্রশ্ন থাকবে।

‘সাধারণ জ্ঞান’ পরীক্ষায় প্রতি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নাম্বার কর্তন করা হবে। সাধারণ জ্ঞান’ ও ‘অঙ্কন’ (ফিগার ড্রয়িং) দুইটি পরীক্ষার মোট প্রাপ্ত নম্বরের ৪০% পাশ নম্বর হিসেবে গণ্য করা হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির যোগ্যতা:

আপনারা যারা ২০২২ সাল এবং পরবর্তীতে যারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিবেন তাদের জন্য নিচের ইউনিট সমূহের নিয়মাবলী জানা অবশ্যই জানা থাকতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য প্রার্থীকে অবশ্যই ২০১৭ থেকে ২০২০ সালের মধ্যে এসএসসি এর সমমানের পরীক্ষায় পাশ থাকতে হবে । এবং ২০২২ সালের উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করতে পারবেন। আর অবশ্যই ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে বিভিন্ন ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন করার জন্য ভিন্ন ভিন্ন যোগ্যতার প্রয়োজন হয় । আমরা সম্পূর্ণ ঢাকা ইউনিভার্সিটির ইউনিট সমূহের আবেদন যোগ্যতা দেওয়া হল:

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিট সমূহ:

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক ইউনিট (বিজ্ঞান বিভাগ):

Science (বিজ্ঞান) Agriculture Science (কৃষিবিজ্ঞান) শাখায় উচ্চ মাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বাের্ডের বিজ্ঞান শাখায় আলিম ও IGCSE/O Level এবং IAL/GCE A Level পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত উভয় জিপিএ যােগফল ন্যুনতম ৮.০০ রয়েছে যাদের তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে কোন পরীক্ষাতে ৩.৫ এর কম জিপিএ থাকলে Dhaka University আবেদন করতে পারবেন না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খ ইউনিট (মানবিক বিভাগ):

এই ইউনিটে মানবিক শাখায় উচ্চ মাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বাের্ডের উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত উভয় পরিক্ষায় জিপিএ যােগফল ন্যূনতম ৭.৫০ যাদের রয়েছে তারা ঢাকা ইউনিভার্সিটি ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে এর কোনটিতে ৩.০ এর কম জিপিএ থাকলে আবেদন করতে পারবেন না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ ইউনিট (ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ):

এই ইউনিটে ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় উচ্চ মাধ্যমিক, Diploma in Business Studies, Diploma in commerce ও Business Management পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জিপিএ-দ্বয়ের যােগফল ন্যূনতম ৭.৫০ যাদের রয়েছে তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। এই বিভাগের কোন পরীক্ষাতে ৩.০০ এর কম জিপিএ থাকলে ঢাকা ইউনিভার্সিটি তে আবেদন করতে পারবেন না।

একাউন্টিং বিষয়টি অবশ্যই থাকতে হবে যারা উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে ডিপ্লোমা-ইন-বিজনেস স্টাডিজ, ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট শাখা থেকে আসবে এবং উক্ত বিষয়ে ন্যূনতম বি-গ্রেড গ্রেড-পয়েন্ট ৩.০ হতে হবে।

ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য:

ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় উচ্চ মাধ্যমিক, Diploma in Business Studies, Diploma in commerce ও Business Management শাখা থেকে আগত প্রার্থীদের মধ্যে যাদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জিপিএ-দ্বয়ের যােগফল ন্যূনতম ৭.৫০ (মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় পৃথকভাবে ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫ থাকতে হবে) যাদের রয়েছে তারাই কেবল ঢাকা ইউনিভার্সিটি তে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে। উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় কোন বিষয়ে বি-গ্রেড (গ্রেড পয়েন্ট ৩.০০) এর নিচে আবেদন গ্রহণযােগ্য হবে না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চ ইউনিট (চারুকলা বিভাগ):

এই ইউনিটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করার জন্য উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষার যে কোন শাখায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জিপিএ-দ্বয়ের যােগফল ন্যূনতম ৬.৫০ থাকতে হবে যাদের রয়েছে তারা ঢাকা ইউনিভার্সিটি তে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে এই ইউনিটে। এই গুলোর কোন পরীক্ষাতে ৩.০০ এর কম জিপিএ থাকলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করতে পারবে না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য: ভর্তি পরীক্ষায় যেভাবে আবেদন করবেন সহজে, Dhaka University admission applying process:

স্নাতকপূর্ব ভর্তি আবেদন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির আবেদন করার নিয়ম

স্নাতকপূর্ব ভর্তি আবেদন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করতে হবে অনলাইনে কিভাবে আবেদন করবেন ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে, কিভাবে করবেন অনলাইনে আবেদন বিস্তারিত আমরা নিচে তুলে ধরছি।

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করার জন্য প্রথমেই সাইন ইন করতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এর জন্য প্রথমে ভিজিট করুন https://admission.eis.du.ac.bd এই ওয়েবসাইটে। এরপর ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য নিজের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল ও বোর্ড এবং মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল টাইপ করুন।
  • পরবর্তী ধাপে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির আবেদনের জন্য আবেদন কারী উচ্চমাধ্যমিক এবং মাধ্যমিকের সকল তথ্য দিতে হবে, যেমন বর্তমান ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর, পিতা ও মাতার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর দিতে হবে।
  • Dhaka University Center Selection: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদনের জন্য শিক্ষার্থীকে ৮টি বিভাগীয় শহরের যেকোন ১ টি কে তার ভর্তি কেন্দ্র হিসেবে নির্বাচন করতে হবে।
  • আপনার একটি স্ক্যান করা একটি ছবির দিতে হবে ইমেইজ ফরমেট হল (Format: jpg, Size: 30 – 200KB, Width: 360-540px, Height: 540-720px)
  • আপনাকে এসএমএস করার জন্য শিক্ষার্থীর কাছে অবশ্যই টেলিটক, রবি, এয়ারটেল অথবা বাংলালিংক অপারেটর এর একটি মোবাইল নম্বর থাকতে হবে।
  • ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে ফি জমা দেওয়ার জন্য তাৎক্ষনিক অনলাইনে (VISA /Mastercard/ American Express ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ড, মোবাইল ব্যাংকিং , ইন্টারনেট ব্যাংকিং ) বা চারটি রাস্ট্রায়ত্ব ব্যাংকে (সোনালী, জনতা, অগ্রণী ও রূপালী) নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে জমা দিতে হবে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমতা নিরূপণ যেভাবে করবেন অনলাইনে:

Dhaka University সমতা নিরুপনের জন্য A-Level/O-Level/সমমান বিদেশী পাঠ্যক্রমে বা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের প্রথমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে হবে https://admission.eis.du.ac.bd ভিজিট করে “সমমান আবেদন” বা “Equivalence Application” মেনুতে ক্লিক করে আবেদন করতে হবে তারপর তাৎক্ষণিকভাবে অনলাইনে নির্ধারিত ফি জমা দিতে হবে উপরের দেওয়া কার্ড গুলো বা ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে।

যখন সমতা নিরূপনের শেষ হলে তারপর প্রাপ্ত “Equivalence ID” ব্যবহার করে তারপর তারাও সাধারণ শিক্ষার্থীদের মত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এ লগইন করে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য ২০২৩

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ফি কত?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির জন্য আবেদন ফিস, ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে আবেদন ফিস ছিল ৩৫০ টাকা। তারপর ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন ফি করা হয় ১০০ টাকা বাড়িয়ে ৪৫০ টাকা। আর তারপর অর্থাৎ ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে আরও ২০০ টাকা বাড়িয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন ফি করা হয়েছে ৬৫০ টাকা। সর্বশেষ ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি ফরমের মূল্য আরও ৩৫০ টাকা বাড়িয়ে ১০০০ টাকা করা হয়েছে ঢাবি ভর্তি ফি।

এইচএসসি পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর হাতে বেশি সময় পাওয়া যায় না প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তাই এখন থেকে আপনারা মনোযোগ দিয়ে ঢাবি ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি শুরু করে নিন, এখন থেকে শুরু করে নিলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সিট পাওয়া আপনার জন্য ইজি হয়ে যাবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট:

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনারা ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার সকল তথ্য সংগ্রহ করতে পারেন আরোও বিস্তারিত তবে আমরাও এই সব ইনফরমেশন ইউনিভার্সিটির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহ করে আরও ভালো ভাবে বিস্তারিত বুঝানোর চেষ্টা করেছি আশা করি বুঝতে পেরেছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ওয়েবসাইট হল: www.du.ac.bd this is Dhaka University official website.

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন আবেদন করার পর আপনি ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে ভর্তির জন্য আবেদন করার কিছু দিনের মধ্যে আপনি অনলাইন থেকে আপনার ভর্তি আবেদন করার সময়ের আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে আপনার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করে নিতে পারবেন, এবং আমরা আপনার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করার সকল পদ্ধতি শীগ্রই দিয়ে দিব।

du.ac.bd admission login করার নিয়ম?

du.ac.bd admission login করার নিয়ম অনেক সহজ আপনি ভর্তি আবেদন করার পর যে আইডি পাসওয়ার্ড পাবেন সেই আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে du.ac.bd admission login সার্চ করে ভিজিট করার পর আপনার আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে নিতে পারবেন।

ঢাকা ভার্সিটিতে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগে?

ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে আবেদন করার যোগ্যতা হল আপনি এসএসসি ও সমমানের এবং এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয়সহ নূন্যতম জিপিএ ৩.৫০ সহ আপনার মোট জিপিএ পয়েন্ট ৮.০০ উভয় পরিক্ষায় মিলে থাকতে হবে। অর্থাৎ সর্বমোট জিপিএ ৮.০০ উভয় পরিক্ষায় মিলে থাকলে আপনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা কিভাবে হয়?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা কিভাবে হয়? ১২০ নম্বরের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মেধা তালিকা নির্বাচন করা হবে। MCQ এবং লিখিত পরীক্ষা মিলে ১০০ নম্বর নির্ধারিত থাকবে আর বাকি ২০ নম্বর এসএসসি পরীক্ষায় ও চতুর্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জিপিএ ২ দিয়ে এবং এইচএসসি পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয়সহ  প্রাপ্ত জিপিএ ২ দিয়ে গুন করে এই দুটি পরিক্ষার যোগ ফল ১০০ নম্বরের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের সাথে যোগ করে মোট ১২০ নম্বরের উপর শিক্ষার্থীদের মেধা তালিকা নির্ধারণ করা হবে। আর মনে রাখবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার লিখিত পরীক্ষার অংশে কমপক্ষে ১২ নম্বর পেতে হবে। আর এমসিকিউ ও লিখিত উভয় পরীক্ষা মিলিয়ে সর্বমোট আপনার পাশ নম্বর ৪০ হতে হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায়।

ঢাবিতে ভর্তি হতে কি কি কাগজ লাগে?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় পাশ হওয়ার পর ভর্তি হতে কাগজ পত্র প্রয়োজন হবে এসএসসি এবং এইচএসসি সার্টিফিকেট এবং মার্কশিট এর ফটোকপি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার রেজাল্টের ফটোকপি আর সাথে ভর্তি ফি দিতে হবে, ভর্তি ফি বিষয়ে বিস্তারিত পোস্টটিতে দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগে?

ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে আবেদন করার যোগ্যতা হল আপনি এসএসসি ও সমমানের এবং এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয়সহ নূন্যতম জিপিএ ৩.৫০ সহ আপনার মোট জিপিএ পয়েন্ট ৮.০০ উভয় পরিক্ষায় মিলে থাকতে হবে। অর্থাৎ সর্বমোট জিপিএ ৮.০০ উভয় পরিক্ষায় মিলে থাকলে আপনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

Mahfujur Rahman

Mahfujur Rahman is the founder of this Blog. He is a Professional Blogger and SEO Expert, who is interested in SEO, Web Programming. If you need any information related to this website, then you can feel free to ask here. It is our aim that you get the best information on this blog.

Leave a Reply