সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বৃদ্ধি নিয়ে সুখবর

You are currently viewing সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বৃদ্ধি নিয়ে সুখবর
সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বৃদ্ধি নিয়ে সুখবর

সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বৃদ্ধি নিয়ে সুখবর: শিক্ষকরাই আমাদের দেশের একটি বড় সম্পদ তাদের দ্বারাই আমাদের সন্তানেরা একটি আদর্শ জাতিতে পরিণত হয় ,আর সেই কষ্টের ফল হচ্ছে তাদের সম্মানি বা বেতন আজ আমি সেই বেতন বৃদ্ধি নিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় শেয়ার করলাম

সরকারি কর্মচারীদের প্রতি বছরই বেতন বৃদ্ধি হয়।তবে এটা নির্ধারিত ও ইনক্রিমেন্ট ধাপ অনুসারে হয়ে থাকে কার ও যদি ধাপ শেষ হয়ে থাকে বা সিলিং এ পৌঁছে যান তবে ইনক্রিমেন্ট আর হবে না । বেসরকারি কর্মচারীদের মতন অসমহারে বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি হয়। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে দক্ষ কর্মচারীদের বেতন ৫০০০ টাকা বাড়লে অদক্ষের বাড়ে ২০০০ টাকা, কিন্তু সরকারি প্রাথমিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বেতন সমান হারে বৃদ্ধি পায়।

বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি কখন হয়:

বেসরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি যেকোন সময় হয়ে থাকে। কর্তৃপক্ষ চাইলে বছরে দু’বার ও বেতন বৃদ্ধি করতে পারে।তবে সরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি বছর এ একবার ই হয়ে থাকে।তাহল প্রতি বছর ১ লা জুলাই বেতন বৃদ্ধি বা ইনক্রিমেন্ট হয়।১ লা জুলাই হতে ৩০ জুন কর্মকালের জন্য ১ লা জুলাই প্রতি বছর বেতন বৃদ্ধি হয়ে থাকে।

  • চলতি ,২০২২ সালে‌ও ১ লা জুলাই বেতন বৃদ্ধি তারিখ নির্ধারিত।
  • অর্থাৎ আগামী ১ লা জুলাই সকল সরকারী কর্মচারীদের বেতন ৫% বৃদ্ধি পেয়ে থাকে।
  • তবে গ্ৰেড -১ এ কর্মরত কর্মকর্তার কোন বেতন বৃদ্ধি হবে না , এক্ষেত্রে ৭৮ হাজার টাকা নির্ধারিত বেতন।
  • আবার কারও মূল বেতন গ্ৰেড ২ এ ৬৮৪৮০ টাকা হলে এ বছর তার মূল বেতন দাড়াবে …….৭১০৫০ টাকা।
  • গ্ৰেড -২ :,৬৬০০০-৬৮৪৮০-৭১০৫০-৭৩৭২০-৭৬৪৯০.

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগে ৫০ এর নিচে মার্ক পেয়ে ও হওয়ার সম্ভাবনা

নিম্ন গ্ৰেডের কর্মচারীদের বেতন কত বৃদ্ধি পায়?

১১ থেকে ২০ গ্ৰেডের কর্মচারীদের বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি মূল বেতনে ৫০০ টাকার মতো হয়।কোন কোন ক্ষেত্রে ৫০০-৮০০ টাকার কম ও হয়।ধরা যাক ১৯ নম্বর গ্ৰেডের একজন কর্মচারী রং মূল বেতন ১২০০০ টাকা ,তার চলতি বছরের বেতন বৃদ্ধি পেয়ে মূল বেতন দাড়াবে ১২৬০০টাকা।

গ্ৰেড ১৯>৮৫০০-৮৯৩০-৯৩৮০-৯৮৫০-১০৩৫০-১০৮৭০-১১৪২০-১২০০০-১২৬০০-১৩২৩০-১৩৯০০-১৪৬০০-১৫৩৩০-১৬১০০-১৬৯১০-১৭৭৬০-১৮৬৫০-১৯৫৯০-২০৫৭০।

বেতন ভাতা বৃদ্ধি :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন আওয়ামী লীগ সরকার সরকারি কর্মচারীদের কল্যান এর বিষয় নিয়ে সর্বদাই আন্তরিক। কর্মচারীদের বেতন ভাতা বৃদ্ধি সহ বিভিন্ন বিষয়ে সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির বিষয়টি সরকার অত্যন্ত গুরুত্বের সহিত বিবেচনা করেন। বিনিময়ে সরকারি কর্মচারীদের থেকে আন্তরিক সেবা ও দায়িত্বশীলতা প্রত্যাশা করেন।

প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু জনপ্রশাসন পদক ২০২২ প্রদান উপলক্ষে শুক্রবার দেয়া এক বাণীতে বলেন।

প্রতি বছর এর মতন এবারেও কর্মচারীদের সৃজনশীল প্রশংসনীয় কাজের জন্য ‘ বঙ্গবন্ধু জনপ্রশাসন পদক’ প্রদানের উদ্যোগকে তিনি স্বাগত জানান। পদকপ্রাপ্ত সকলকে তিনি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন আমি মনে করি , পদকপ্রাপ্তির এই আনন্দ তাদের উদ্যোম ,মেধা,ও সৃজনশীলতকে আরো শানিত করবে এবং আনন্দে উৎসাহিত করবে।”

সবশেষে বলা যায়, সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি নিয়ে সরকার সবসময়ই আন্তরিক , ইনশাআল্লাহ আগামী দ্বাদশ নির্বাচন এর আগেই আমাদের জন্য হয়তো এই বিশাল সুখবর নিয়ে আসবে।আমি ও আমরা চাই আমাদের শ্রদ্ধেয় শিক্ষক ও কর্মচারী বৃন্দের বেতন ভাতা বৃদ্ধি হোক।কোন বিষয়ে ভূল থাকলে দয়া করে একটু কমেন্ট করে জানাবেন।

READ MORE: এমপিও নীতিমালা থেকে বাদ পড়া ২৬৭৮ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা

Leave a Reply