পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ এর জীবনী | Shehbaz Sharif Prime Minister Pakistan

You are currently viewing পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ এর জীবনী | Shehbaz Sharif Prime Minister Pakistan

Shehbaz Sharif Prime Minister Pakistan: পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ। পাকিস্তানের একটি অনাস্থা ভোটে ইমরান খান ক্ষমতাচ্যুত হন। ইমরানন খান গদি হরানোর পর বিরোধীদলীয় জোটের নেতা শাহবাজ শরিফ নতুন প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন।

পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ

পার্লামেন্টের ৩৪২ জন সদস্যের মধ্যে ভেট হয়। শাহবাজ শরিফের পক্ষে ভোট দেন ১৭৪ জন।  বিষয়টি নিশ্চিত করেন ভারপ্রাপ্ত স্পিকার আইয়ায সাদিক। শাহবাজ শরিফ হ পাকিস্তানের ২৩ তম প্রধানমন্ত্রী। তিনি ২০২৩ সালের অক্টোবর পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকবেন।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ

শাহবাজ শরীফে পরিচয়।

মিয়া মুহাম্মদ শেহবাজ শরীফ একজন পাকিস্তানি রাজনীতিবিদ যিনি ৮ জুন ২০১৩ হতে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নিয়োজিত আছেন। তিনি বিশিষ্ট রাজনৈতিক শরীফ পরিবারের ব্যক্তিত্ব, তিনি মিয়া শরীফ এবং পাকিস্তানের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের ভাই, যিনি পাকিস্তান মুসলিম লীগের সভাপতিও ছিলেন।

শাহবাজ খানের জন্ম

:২৩ সেপ্টেম্বর, ১৯৫১ সালে  পাকিস্তানের লাহোর শহরে শাহবাাজ শরীফ জন্ম গ্রহন করেন।

শাহবাজ শরীফের স্ত্রী।

শাহবাজ শরীফ মোট পাঁচ বিয়ে করেন। তার স্ত্রীদের নাম হলো।

  • বেগম নুসরাত শাহবাজ।তাকে ১৯৭০ সালে বিয়ে করেন।
  • নার্গিস খোসা.  ।
  • আলিয়া হানি বিয়ে করেন ১৯৯৩ সালে।
  • তেহমিনা দুরবানি।  তাকে বিয়ে করেন ২০০৩ সালে।
  • কালসুম হায়ি।  তাকে বিয়ে করেন ২০১২ সালে।

শাহবাজ শরীফের সন্তান।

শাহবাজ শরীফের মোট ছেলেমেয়ে হলেন পাঁচ জন।

  • হামজা শাহবাজ,
  • রাবিয়া শাহবাজ শরীফ,
  • জাভেরীয়া শাহবাজ শরীফ,
  • সালমান শেহবাজ

শাহবাজ শরীফের রাজনৈতিক দল।

শাহবাজ শরীফের রাজনৈতিক দলের নাম কী?: Pakistan Muslim League (N)। পাকিস্তান মুসলিম লীগ।

পাকিস্তান মুসলিম লীগ।

পাকিস্তানের ২৩ তম প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ খানের রাজনৈতিক দলের নাম পাকিস্তান মুসলিম লীগ।

লিডার অব দ্য হাউজ

পাঞ্জাব অ্যাসেম্বলির বিরোধী দলের নেতা ছিলেন শাহবাজবশরিফ। সে হিসেবে সাফল্যের পথে হাটেন। আর ১৯৯৭ সালে তিনি লিডার অব দ্য হাউজ নির্বাচিত হন। তিনি তখন তিনি কঠোর প্রশাসক ছিলেন হিসেবেও নাম।তিনি স্বাস্হ, শিক্ষা ও পরিবেশ উন্নয়নে ভূমিকা রাখেন।

শাহবাজ শরীফের আগের পদ।

তিনি টানা দুইবার ছিলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রি।

১ম বার ২০০৮–২০১৩। আর ২য় বা)২০১৩–২০১৮ পর্যন্ত ছিলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর ভাষণ।

  • স্বল্প মূল্যে গম বিক্রি,
  • তরুণদের ল্যাপটপ প্রদান।
  • বেনজির কার্ড প্রচলনের ঘোষণা।
  • সরকারী চাকরিজীবীদের ন্যূনতম বেতন বাড়ানোর ঘোষণা দেন। সোমবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পার্লামেন্টে রাখা প্রথম ভাষণে সরকারী চাকরিজীবীদের ন্যূনতম বেতন ২৫ হাজার রুপী করার ঘোষণা দিয়েছেন ।

 

শাহবাজ শরীফকে নরেন্দ্র মোদির অভিনন্দন।

পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেছেন শাহবাজ শরিফ। তিনি পাকিস্হানের প্রক্তন প্রধানমন্ত্রী নাওয়াজ শরীফের ভাই। তাঁর প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অভিষেকের পরই টুইটে অনেকে অভিনন্দন জানয়। বিশেষভাবে ভরতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সেই টুইটেই তিনি শান্তিরক্ষা এবং স্থিতিশীলতা কথা বলেন।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জীবনী

Leave a Reply