এইচএসসি পরীক্ষা ২০২২ কোন রকম প্রশ্নফাঁসের সুযোগ নেই

You are currently viewing এইচএসসি পরীক্ষা ২০২২ কোন রকম প্রশ্নফাঁসের সুযোগ নেই
এইচএসসি পরীক্ষা ২০২২ কোন রকম প্রশ্নফাঁসের সুযোগ নেই

শিক্ষা মন্ত্রী ডা দিপু মনি দাবি করেছেন,আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসের কোন সুযোগ থাকছে না।প্রশ্ন আনা নেওয়ার নিরাপত্তা আরো জোরদার করা হবে। পূর্বের ন্যায় আর কখনো প্রশ্নফাঁস এর সুযোগ পাবেনা‌ কেউ তাই পূর্বের অভিজ্ঞতা থেকেই নিরাপত্তা আরো জোরদার করা হয়েছে।

এইচএসসি পরীক্ষা ২০২২ কোন রকম প্রশ্নফাঁসের সুযোগ নেই!

  • ১৯ অক্টোবর শিক্ষামন্ত্রী ,ডা, দিপু মনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা কমিটির সভা শেষে এই কথা বলেন যে,আসন্ন পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস এর সুযোগ থাকছে না , নিরাপত্তা আরো জোরদার করা হবে।
  • শিক্ষা মন্ত্রী ডা দিপু মনি বলেন,চলতি বছরের এস এস,সি সমমান পরীক্ষায় কুড়িগ্ৰাম জেলার একটি পরীক্ষা কেন্দ্রের কেন্দ্রসচিব এর মাধ্যমে প্রশ্নফাঁসের ঘটনা ঘটে। বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখেছি এবং অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা ও নেয়া হয়েছে।

এইচএসসি পরীক্ষায় এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে:
এইচএসসি পরীক্ষায় এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না হয় সেজন্য ডা দিপু মনি বলেন ,আমরা পূর্বের ঘটনা থেকে অভিজ্ঞতা নিয়েছি এবং কোথায় কোথায় গ্যাপ বা ফাঁক ছিল সেটা নিশ্চিত করা ও হয়েছে।পরবর্তী যেসব পরীক্ষা হবে সেগুলোতে যাতে এরকম পরিস্থিতি না হয় সেজন্য আমরা নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা কমিটির সভায় আলোচনা করেছি ।

  • মন্ত্রী বলেন এস,এসসি পরীক্ষায় মূলত প্রশ্নফাঁস হয়নি। একজন কেন্দ্রসচিব তার ক্ষমতা অপব্যবহার করে নির্ধারিত প্রশ্নের বাইরে লকার থেকে পরবর্তী পরীক্ষার কয়েঊ বিষয়ের প্রশ্ন কেবল নিয়েছিলেন।
  • এইচএসসি সমমান পরীক্ষার প্রশ্নের নিরাপত্তা আরো জোরদার করা হয়েছে । উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপস্থিত থাকবেন ,প্রশ্ন সর্টিংর ও লকার থেকে বিতরন করার সময়। প্রতিনিধি পাঠানো যাবেনা বিশেষ কারন ছাড়া।

আগামী বছর এর এইচএসসি পরীক্ষার সিলেবাস কি রকম হবে:
আগামী বছর এর পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে হবে কিনা জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রী ডা দিপু মনি বলেন আগামী বছরে পুরো সিলেবাসে শতভাগ সময় ও নম্বর এ পরীক্ষার আয়োজন করা হবে এবং সেজন্য সিলেবাস ও তৈরি করা হচ্ছে।
সেসব পরীক্ষা তিনঘন্টা ও ১০০ নম্বর এর করা হবে।

আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষার আগে সব কোচিং সেন্টার ও বন্ধ করা হয়েছে এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় , কেননা পরীক্ষার আগে ভালো student এমনিতেই প্রস্তুত থাকে কখন তাদের পরীক্ষা শুরু হবে এই আশায় সময় যায় আর যারা একটু দূর্বল student তারা কিন্তু কোচিং থাকলে কোচিং এর উপর নির্ভরশীল থাকে এবং আরো অনেক সমস্যার সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া কোন শিক্ষক বাসায় কোচিং করালে
তাকে যদি চিহ্নিত করা যায় তাহলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  • আগামী ৬ নভেম্বর একযোগে সারাদেশে শুরু হচ্ছে ২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষা।
  • মোট ১২ লাখ ৩ হাজার ৪০৭ পরীক্ষার্থী এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন ।
  • ছাত্রী সংখ্যা ৫ লাখ ৮০ হাজার ৬১১ জন।
  • ছাত্র সংখ্যা ৬ লাখ ২২ হাজার ৭৯৬ জন।
  • মোট ৯ হাজার ১৮১ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন।
  • মোট ২ হাজার ৬৪৯ টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

সুতরাং এবারের এসএসসি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে যা,যা দরকার তাই সুন্দর ও স্বচ্ছভাবে হবে যাতে কোনোভাবেই প্রশ্নফাঁস না হয় তার ও ব্যবস্থা করা হবে এটাই সবার কাম্য যাতে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হোক।

এইচএসসি পরীক্ষা ৬ নভেম্বর ২০২২: সব কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশ

Leave a Reply