You are currently viewing ইলন মাস্কের জীবনী | Elon Musk Biography

ইলন মাস্কের জীবনী | Elon Musk Biography

ইলন মাস্কের জীবনী: উদ্যোক্তা শব্দের সাথে আমরা সবাই কমবেশ  পরিচিত। তারুণ প্রজন্মের কাছে উদ্যোক্তার ব্যাপারটা বেশ জনপ্রিয়। এই উদ্যোক্তা ধারণার মাধ্যমে অনেকলোক উন্নতির চূড়ায় আরোহন করেছেন। হয়েছেন পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ধনকুবের। যেমন- বিল গেটস, মার্ক জুকারবার্গ জেফ বেজোস সহ আরো অনেকেই। কিন্তু তাদের কর্মকাণ্ডে রয়েছে সীমাবদ্ধতা। তারা নির্দিষ্ট একটি বিষয় নিয়ে কাজ করেন বা কেবল উক্ত বিষয়ের  উদ্যোক্তা। Elon musk

Elon Musk Biography

কিন্তু তাদেরকে ছাড়িয়ে গেছেন ‘ইলন মাস্ক’ Elon Musk। তিনি বিভিন্ন বিষয়ে রয়েছে চোখধাঁধানো সাফল্য। রীতিমত তিনি তরুণ উদ্যোক্তাদের আয়ডলে পরিণত হয়েছেন। সাম্মানিত স্কলারমির পাঠক বন্ধুরা!  আজ আমরা ‘ইলন মাস্কে’ Elon Musk নিয়ে আলোচনা করব। আমরা শেষ পর্যন্ত আর্টিকেল টি পড়ুন। আশা করি! জীবন পরিবর্তনের উদ্দীপনায় উজ্জবিত হবেন।

ইলন মাস্কের জীবনী

জন্ম ও পরিচয়:

উদ্যোক্তাদের নাম শুনলে যে নামটি প্রথমে চলে আছে সেটা হলো – (ইলন মাস্ক) Elon Musk। তার পুরো নাম হলো – ইলন রেভ মাস্ক। তিনি এক বিস্ময়। তিনি একজন বিজনেসম্যান, ইন্জেনিয়ার, শিল্প ডিজাইনার। Elon Musk owner of Tesla, SpaceX, Tesla কিংবা SpaceXএর প্রতিষ্ঠাতা। কিন্তু তারচে অবাক  করা তথ্য হলো – জনপ্রিয় পেমেন্ট মেথড পেপ্যাল (PayPal) এর একজন প্রতিষ্ঠাতা।

Elon musk Family, Parents and Citizenship.

ইলন মাস্ক (Elon Musk) দক্ষিণ   আফ্রিকার প্রোটোরিয়ায়, ২৮ শে জুন ১৯৭১ সালে জন্ম গ্রহণ করে। মায়ে কস্তুরী ,তিনি একজন  কানাডিয়ান। তার বাবা হলেন – এরোল মাস্ক।তিনি একজন ইন্জেনিয়ার,নাবিক ও পাইলট। তাছাড়া তার আরো একজন ভাই-বোন রয়েছে। ভাই কিম্বল। আর বোন টসকা।

শিক্ষা – Education

Elon musk প্রোটোরিয়া ‘বয়েজ স্কুলে’ লেখাপড়া করেন। তিনি ১৯৮৯ সালে কুয়েন্স ইউনিভার্সিটি এডমিট হন। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার আইন হলো -সবাইকে সেনাবাহিনী ট্রেনিং নিতে হত।কিন্তু তার এর প্রতি আনীহা ছিল। কি আর করার – তিনি পালায়ন করলেন। একেবারে দেশ ছেড়ে কানাডায়  উঠলেন।সেখান থেকে আমেরিকায় পদার্পণ করলেন। পদার্পণ করলেন নব জীবনে। সেটা ১৯৯২ সালের ঘটনা।

Elon Musk Transferred to the University of Pennsylvania

পেনসেলভেনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ি জমান। সেখানে ব্যবসা ও পদার্থ বিজ্ঞান নিয়ে পড়া লেখা করেন। এবং ব্যাচেলর ডিগ্রী লাভ করেন।তিনি এ ১৯৯৭ সালে হোয়ারটন স্কুল থেকে অর্থনীতিতে ব্যাচেলর ডিগ্রীও আর্জন করেন। এরপর জ্বলানি পদার্থ বিজ্ঞান নিয়ে পিএসডি ডিগ্রীর জন্য স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে এডমিট হন।কিন্ত সেখানে মাত্র দুই থাকেন।

Zip 2 প্রতিষ্টা।

স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে যখন ভর্তি হন তখন বিশ্বে নতুন জোয়ার চলছিল। তথ্য প্রযুক্তির জোয়ার। তাই Elon Musk ও এ স্রোতে গা ভাসিয়ে দেন। ২ দিনের মাথায় ছেড়ে দেন স্ট্যানফোর্ডে বিশ্ববিদ্যালয় তার পিএইচডি।

তারপর তিনি প্রতিষ্টা করে Zip 2  নামক আনলাইন ভিত্তিক প্রতিষ্টান। এটা তার প্রথম প্রতিষ্টান। এটি একটি সফটওয়্যার। অনলাইনে সিটি গাইড দিয়ে থাকে।প্রতিষ্টানটি যাত্রাশুরু করার পর ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে।নিউ ইয়র্ক টাইমস ও শিকাগো ট্রিবিউনের কাছে তারা তথ্য বিক্রি করা শুরু করেন।পরবর্তী ১৯৯৯ সালে compaq computers এর কাছে ৩০৭ মিলিয়ন ডলারের বিনিময়ে zip 2 বিক্রয় করেন।

বই পড়া।

অল্প বয়সে পিতামাগার ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। Elon musk ভীষণ আঘাত পান। তার একটি প্রসিদ্ধ উক্তি আছে – “আমি পিতামাতার হাত ধরে বড় হয় নি, বয় হয়েছি বই পড়ে পড়ে।”

কম্পিউটার গেইম ‘ব্লাস্টার্স ‘আবিষ্কার।

Elon Musk (ইলন মাস্ক) বয়স যখন ১০ বছর, তখন তার পিতামাতার ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এসব কিছু তার প্রতিভায় নেতিবাচক  প্রভাব ফেলে নি।ছোটবেলায়ই তার কম্পিউটারে একটু আলগা রকম ঝোক ছিল। কাজেই কমবয়সে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং শিখে নেন। কিছুদিনের মধ্যে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেন। মাত্র ১২ বছর বয়সে আবিষ্কার করেন নিজের প্রথম কম্পিউটার গেইম। যার নাম ছিল ব্লাস্টার্স। সেটি ৫০০ ডালারেও বিক্রয় করে নেন।

Elon Musk Paypal প্রতিষ্টা।

১৯৯৯ সালে Elon Musk একটি অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম এর সূচনা করেন । ১০ মিলিয়ন বিনিয়গ করে তিনি  X.COM প্রতিষ্টা করেন। যা মূলত অনলাইনে পেমেন্ট সিস্টেম।

২০০১ সালে Confinity  কোম্পানির সাথে মিলিত হয়। এবং নতুনভাবে নামকরণ করা হয়।যেটি আমাদের কাছে PayPal নামে পরিচিত হয়। ২০০২ সালে eBay কোম্পানি PayPal কে ১.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিময়ে ক্রয় করে নেয়।বর্তমানে তিনি শিয়ারে এ প্রতিষ্টান থেকে ১৬৫ মিলিয়ন ডালার আয় করেন এলন মাস্ক।

SpaceX প্রতিষ্টা।

অনলাইনে সাফল্যের পর  (Elon musk)  ইলন মস্কের মাথায় নতুন চিন্তা ঝেকে বসে। তিনি এবার মঙ্গল গৃহে উড্ডন করতে চান । সে জন্য তিনি রদশিয়ায় পড়ি জমান।সেখান থেকে ফিরে এসে রকেট নিয়ে গবেষণা চালান। ২০০২ সালে SpaceX নামে একটি টেইক অফ কোম্পানি লান্চ করেন।আর আল্প কয়েকদিনের মধ্যে তিনি রকেট বিজ্ঞানী হিসাবে নামডাক ছড়িয়ে পরে।মজার কথা হলো বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট এ Spacex এর মাধ্যমে উড্ডয়ন করে।

Tesla  টেসলা এর প্রতিষ্টা।

বিশ্ববিখ্যাত মোটরস টেসলা এর কথা কে জানে না? প্রতিটি বাড়িতে এই গাড়ি শুভা পায়। এই বিশ্ব বিখ্যাত টেসলা কোম্পানি সহ প্রতিষ্টা ও প্রধান পরিকল্পনাকারী  এলোন মাস্ক( Elon Musk)।তিনি প্রতিটি পণ্যে ডিসাইন ও প্রকৌশল সহ যাবতীয় কার্যক্রম করে থাকেন।

বিশ্ববিখ্যাত রেইস কার ‘রোডস্টার’ ও টেসলার। প্রতিষ্টানটি শুরু পাচঁ বছরের মধ্যে কারটি বাজারে নিয়ে আসেন। কারটি মাত্র ৩.৭ সেকেন্ডে ০ থেকে এর গতিবেগ ঘন্টায় ৬০ কিলোমিটারে যেতে সক্ষম।

SolarCity এর ধারণা।

“ইলন মাস্ক (Elon Musk) একজন পরিবাশ কর্মী ” একথা ভুল হবে না। কারণ তিনি পরিবেশের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তার বাস্তব প্রমাণ হলো “সোলারসিটি”। বিশ্ব উষ্ণায়নের বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। এ সোলারসিটির মাধ্যমে সৌরশক্তিকে মানুষের কাছে জনপ্রিয় করে তুলেছেন।

খনন প্রতিষ্টান।

“দি বোরিং কোম্পানী” একটি খননকারী প্রতিষ্টান।এটি যাত্রা শুরু করে ২০১৭ সালে Elon musk এর হাত ধরে। প্রতিষ্টানটির উদ্দ্যেশ্য হলো – নগরির ট্রাফিক সমস্যা দূরীকরণ। বিভিন্ন রকম টেনেল খননে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে।

HyperLop এর প্রতিষ্টা

হাইপারলোপ হলো দ্রুত ও সহজে যাতায়াত করার প্রদ্ধতির নাম। এই প্রদ্ধতির মাধ্যমে খুব সহজে অতি অল্প সময়ে এক শহর থেকে অন্য শহরে যাতায়াত করা যাবে। এই প্রদ্ধতি ২০১৩ সালে শুরু করেন। Elon Musk এটিও পতিষ্টাতা।

বিয়ে ও স্ত্রী  Wife

এলন মাস্ক Elon Musk  দুইটি বিয়ে করেছেন।

১. ২০০০ সালে তিনি  জাস্টিন উইলসনকে বিয়ে করেন ।তিনি একজন কানাডিয়ান রাইটার।কিন্তু তার সংসার বেশদিন ঠেকেনি। ২০১০ সালে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।

 

২..ইলন মাস্কের ২য় বার বিয়ে করেন টালুলাহ রেইলিকে।তিনি একজন বৃটিশ অভিনেত্রী। ২০১৬ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়।

বর্তমানে ইলন মাস্কের Elon musk হলিউড অভিনেত্রী এ্যামবার হার্ড এর সাথে প্রণয়ের সম্পর্ক আছে।

সান্তান সন্তানাদি।

Elon musk এর সর্বমোট ৬ জন ছেলেমেয়ে আছেন। সবাই প্রথম স্ত্রীর গর্ভজাত।

Amazon প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোসের জীবনী

Leave a Reply