You are currently viewing কানাডায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য এক্সচেঞ্জ স্কলারশিপে পড়ার সুযোগ ( Educanada Study in Scholarship)

কানাডায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য এক্সচেঞ্জ স্কলারশিপে পড়ার সুযোগ ( Educanada Study in Scholarship)

Governments of Canada বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য Educanada study in Scholarship ‘এডুকানাডা স্টাডি ইন স্কলারশিপ’–এ Exchange প্রোগ্রামটি বর্তমানে চালু করেছে। 2021 সাল থেকে প্রতিবছর বাংলাদেশিদের এখন থেকে স্কলারশিপটি দেওয়া হবে।

How is the scholarship? (স্কলারশিপটি কেমন)

স্কলারশিপটি দেওয়া হয় ( Government of Canada through Global Affairs Canada ) কানাডা সরকারের গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডার আনুষ্ঠানিক সংস্থা ডিপার্টমেন্ট অব ফরেন অ্যাফেয়ার্স, ট্রেড অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ডিএফএটিডি) থেকে শুধুমাএ উন্নয়নশীল কয়েকটি দেশের আন্ডারগ্র্যাজুয়েট ও মাস্টার্স অধ্যয়নরত ছাত্রছাত্রীদের জন্য, যেন তাঁরা এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামে ফুল ফিন্যান্সিয়াল সাপোর্ট দিয়ে কানাডার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় পড়তে আসতে পারবেন। এই দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশকেও এই বছর থেকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এশিয়া থেকে আছে মাত্র তিনটি দেশ—Bangladesh, Nepal, Taiwan|

 

আপনি যদি বর্তমানে Bangladeshi কোনো University গুলোর মধ্যে‌ Undergraduate কিংবা মাস্টার্সে পড়াশোনা করছেন, এমন যে কোন কেউ আবেদন করতে পারবেন। চার মাস বা এক সেমিস্টারের জন্য স্কলারশিপটি দেওয়া হবে। এবং এই একটি সেমিস্টারের আপনি Canadai এসে কোনো একটা নির্দিষ্ট Universityte কোর্সওয়ার্ক বা রিসার্চ ওয়ার্ক ইত্যাদি সম্পন্ন করবেন। এর যাবতীয় খরচ Government of Canada বহন করবে। সাধারণত জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। তবে প্রত্যেকটি Canadian University এর নিজস্ব আবেদনের শেষ তারিখ থাকবে, যেটা মার্চের আগেও কিংবা পরে হতে পারে, তাই ভার্সিটিভেদে আবেদনের শেষ তারিখ ভিন্ন ভিন্ন হবে।

সুযোগ সুবিধাসমূহ

যারা এই Scholarship এর জন্য মনোনীত হবেন, তারা।

1, ১০ হাজার ২০০ Canadian Dollar পাবেন ৪ মাসের জন্য। এবং ছয় মাসের রিসার্চের জন্য যে মাস্টার্সের শিক্ষার্থীরা আসবেন, তাঁরা পাবেন ১২ হাজার ৭০০ কানাডিয়ান ডলার পাবেন (প্রায় বাংলাদেশী টাকায় সাড়ে 8 লাখ টাকা)।

2, Scholarship টি স্কিম অনুযায়ী শিক্ষার্থীর কোনো টিউশন ফি নেই কানাডাতে এই এক সেমিস্টার পড়ার জন্য। তাই এই টাকা দিয়ে মূলত ভিসা ফি, আসা–যাওয়ার প্লেনের টিকিট, থাকার খরচ, হেলথ ইনস্যুরেন্সসহ আনুষঙ্গিক সব খরচ বহন করা হবে।

3. তাছাড়াও Canada আসার পর international Networking, প্রফেসরদের সঙ্গে রিসার্চ করার অভিজ্ঞতা এবং ক্লাস করার অভিজ্ঞতা লাভের সুযোগ থাকছে।

আবেদনের যোগ্যতা

1. প্রুফ অব সিটিজেনশিপ

2. প্রুফ অব ফুলটাইম এনরোলমেন্ট।

3. লেটার অব ইনটেন্ট।

4.Netter of Support from the Home Institution: Mention the name of the candidate in the Departmental Head or Dean Institutional litter Head) ডিপার্টমেন্টাল হেড বা ডিন প্রাতিষ্ঠানিক লেটার হেডে প্রার্থীর নামসহ উল্লেখ করবেন।

5. Letter of Invitation from the Canadian Supervisor ( কানাডিয়ান সুপারভাইজারের কাছ থেকে আমন্ত্রণ পত্র )

6. Signed copy of Memorandum of Understanding (এমওইউ) সমঝোতা স্মারকের স্বাক্ষরিত অনুলিপি

7. Canadian University গুলোর নিজ নিজ Language রিকোয়ারমেন্ট আছে, যা Department অনুযায়ীও ভিন্ন হবে। তাই এ ব্যাপারে ডিএফএটিডি নিজ নিজ Canadian University এর সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলে দিয়েছে।

যেসকল স্থানের প্রার্থীদের জন্য প্রযোজ্য: বাংলাদেশ

আবেদন পদ্ধতি:

আবেদন আপনি নিজে করতে পারবেন না, আবেদন করতে হবে আপনাদের বাংলদেশের নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে। আপনার নিজেদের Universityr ডিপার্টমেন্টাল হেড বা ডিনকে গিয়ে বলতে হবে এই স্কলারশিপের কথা। তিনি নাম–পরিচয় উল্লেখ করে যাবতীয় ডকুমেন্টসহ অনলাইনে আবেদন জমা দেবেন কানাডায় যে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে শিক্ষার্থীর আসতে চান এই স্কলারশিপের অধীনে, সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে। অনলাইনে আবেদনপত্র জমা দেওয়ার জন্য ডিএফএটিডির অনলাইন পোর্টালে মোমেন্টাম অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে “আবেদন করুন” বাটনে ক্লিক করে। আবেদন অনলাইনে সাবমিট করলে সেটা পাওয়ার পরে কানাডার সেই বিশ্ববিদ্যালয় ডিএফএটিডি প্রার্থীর জন্য ফাইনাল আবেদন সাবমিট করবে।

আপনি যদি অনলাইনে আবেদন করতে চান তাহলে নিচের লিংকে ক্লিক করুন। (https://bit.ly/2ZK0vDB)

বিস্তারিত অফিসিয়াল লিংকে। www.canada.ca

Deadline:

আবেদনের শেষ তারিখ: মার্চ ৩১, ২০২১ (৩৬দিন বাকি)

This Post Has 3 Comments

Leave a Reply