সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিতর্ক চর্চা শুরু করতে চান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি

You are currently viewing সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিতর্ক চর্চা শুরু করতে চান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিতর্ক চর্চা শুরু করতে চান শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড ।আর এই শিক্ষা কেবল বই পড়লেই হবেনা ।আর্দশ জাতি গঠনে দেশের উন্নয়নে দেশের সমৃদ্ধি ও সম্মান বাড়াতে বিভিন্ন প্রতিযোগীতায় এগিয়ে থাকতে হবে । তেমনি বির্তক প্রতিযোগিতা একটি অন্যতম বিষয়।যা প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই বিতর্ক প্রতিযোগিতা চালু করা দরকার।

সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিতর্ক চর্চা শুরু করতে চান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি?

শিক্ষা শুধু বই পুস্তকে সীমাবদ্ধ হলে চলবেনা প্রকৃত জ্ঞানার্জনের ক্ষেত্র কিন্তু বিশাল ।আর এই বিশাল জ্ঞান অর্জন কেবল পরীক্ষা পাশ এবং বই পুস্তক এর মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় তার জন্য দরকার সাধারণ জ্ঞান সম্পর্কে জানা বিভিন্ন প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করা ইত্যাদি তেমনি শিক্ষার অনবদ্য একটি বিষয় হচ্ছে বির্তক প্রতিযোগিতা। এর জন্য শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দিপু মনি মন্তব্য করেছেন দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এ বির্তক চর্চা শুরু করার জন্য।
শুক্রবার সকালে চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে এম এ ওয়াদুদ স্মারক জাতীয় বির্তক উৎসব উদ্ধোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষা মন্ত্রী ডা.দিপু মনি আরো বলেন আমি চাই আমাদের নতুন প্রজন্ম কে মুক্ত চিন্তার মানুষ হিসাবে গড়ে তুলতে হবে এবং যুক্তিবাদী মানুষ হিসাবে গড়ে তুলতে হবে।প্রযুক্তি বান্ধব নয় প্রযুক্তি উদ্ভাবনে দক্ষ, মানবিক এবং সৃজনশীল মানুষ হিসাবে গড়ে তুলতে হবে ‌।

বির্তক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। বির্তক চর্চা মানুষকে যুক্তিবাদী হতে শেখায়।ভাষার উপর দক্ষতা বাড়াতে সাহায্য করে।বির্তক একজন মানুষকে পরম সহিষ্ণু হতে শেখায়।

এর পূর্বে ড. দিপু মনি বির্তক উৎসব উদ্বোধন উপলক্ষে রেলিতে অংশগ্রহণ করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের ‌মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমদ ,ড. আব্দুল নূর তূষার , চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অসিত বরণ দাস ,পৌর মেয়র জিল্লুর রহমান ,সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নাজিম দেওয়ান, ফরিদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম রোমান সহ আরো অনেকে।

জানা গেছে এম এ ওয়াদুদ স্মারক বির্তক প্রতিযোগিতায় দেশের ৩২ বিশ্ববিদ্যালয় ও দেড়শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর ২ হাজার বিতার্কিক অংশগ্রহণ করেছেন।

সুতরাং বলা যায় বির্তক চর্চা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় কেননা এর মধ্যে দিয়ে শিক্ষার্থী তারা যুক্তিবাদী হতে পারে তাদের জ্ঞান আরো বিকশিত হয় ।তাই প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বির্তক চর্চা শুরু করলে শিক্ষার্থী অনেক উপকৃত হতে পারবে।

আরোও পড়ুন: কুমন শিক্ষাক্রম কি? আগামী বছর ৩০০ স্কুলে কুমন শিক্ষাক্রম চালু হবে

Leave a Reply