You are currently viewing Mufti Menk ( মুফতি ইসমাইল ইবনে মিন্ক এর জীবনী। কে উনি ।

Mufti Menk ( মুফতি ইসমাইল ইবনে মিন্ক এর জীবনী। কে উনি ।

Mufti Menk ( মুফতি ইসমাইল ইবনে মিন্ক এর জীবনী।

জর্ডানে ইসলামি চিন্তার জন্য রয়েল আল-বায়াত ইনস্টিটিউট ফর ইসলামিক চিন্তাধারার মাধ্যমে  বিশ্বের ৫০০ ইসলামি প্রভাবশালী ব্যক্তিবর্গের মধ্যে তিন তিন বার প্রথম হন মুফতি ইসমাইল মিন্ক।

Mufti Menk Arrives in Gambia:

মুফতি ইসমাইল ইবনে মিন্ক জিম্বাবুয়ান নাগরিক।তিনি ১৯৭৫ সালে জিম্বাবুয়ের রাজধানী হারারে শহরে এক মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করে।(Mufti Ismail Ibn Menk is a Zimbabwean citizen. He was born in 1985 in Harare, the capital of Zimbabwe, to a Muslim family)

তিনি Mufti Menk নামে অধিক পরিচিত। মুফতি মিন্ক জানপ্রিয় একজন বক্তা ও ইসলাম প্রচারক।তিনি সাবলীলভাবে ইসলামের কন্সেপ্ট লোক সম্মুকে তুলে ধরেন বলেই সব দিকে তার জয়জয়কার অবস্হা। মুফতি একজন ইসলামি আইন বিশেষজ্ঞ, তিনি তার দেশের প্রধান মুফতি বা গ্রান্ড মুফতি।

Student Life:

মুফতি মিন্ক জিম্বাবুয়ের হারারে শহরে জন্মগ্রহণের সুবাদে সেখানে তার লেখাপড়া শুরে করেন।।তার শিক্ষার হাতেখড়ি হয় উনার বাবার হাতে।। তিনি হারারে সেন্ট জনস কলেজেও পড়ালেখা করেন।। তিনি প্রথম পর্যায়ে পবিত্র কুরআন মাজিদ হিফজ সমাপ্ত করেন।এরপর তিনি আরবি, উর্দু ও ফারসি ভাষায় বুৎপত্তি আর্জন করেন। এসব ভাষায় নানা ধরণের অভিজ্ঞতালদ্ব জ্ঞান দিয়ে নিজেকে সম্মৃদ্ধ করেন।মুফতি মিঙ্ক ( Mufti Menk) এর  জ্ঞানার্জনের পিছনে বিরাট ভূমিকা পালন করেন উনার শ্রদ্বেয় পিতা। সব পিতাই সন্তানের জন্য বটগাছের ছায়াতুল্য, কিন্তু মুফতি মিন্কের ক্ষেত্রে এ ছায়া বেশ বিস্তৃত ছিল। তিনি জীবনের গুরুত্বপূর্ণ পাঠ হানাফি মাযহাব বা ফিকহে হানাফি তার বাবার কাছে পড়েন।

Student of Islamic University of Madinah:

মুফতি মিন্ক যখন বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে উপনীত হন, সেক্ষেত্রে তার জীবনের সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ পদক্ষেপ নেন তার বাবা।মুফতি মিন্কে অগোচরে তিনি মদিনা ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ে (Islamic University of Madinah) ভর্তির আবেদন করে বসেন এবং তিনি নির্বাচিত হন।পিতা সন্তানকে সুসংবাদটি এভাবে দেন”মদিনা নবির শহর, চেষ্টা করে দেখ কি হয়”৷ আজ তিনি জিম্বাবুয়ের প্রধান মুফতি।

মুফতি মিন্ক বাবার কথা মত মদিনায় শরিয়াহ বিভাগে পাড়াশুনা করেন।মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা সমাপনের পর তিনি ভারতের গুজরাটে পাড়ি জামান। সেখানে তিনি আইন শাস্ত্রে পাণ্ডিত্য অর্জন করেন।

 সমাজ সংস্কার:

মুফতি মিন্কের সমাজ সংস্কারে তার গৃহিত কর্মসূচি প্রণিধানযোগ্য।তিনি কৃতিত্বের সাথে সমাজ সংস্কারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন। তিনি কঠোরভাবে সমকামের বিরুদ্ধে বক্তব্য প্রদান করেন।এই অভিশপ্ত রংধনুর প্রোপোগাণ্ডার বিরুদ্ধে অনবরত বক্তৃতা, সভা-সমাবেশ চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি সমকামীদের উদ্দেশ্য করে প্রায়শই বলেনঃ

‘কিভাবে তোমরা একই লিঙ্গের সাথে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করো? অথচ কুরআন একে স্পষ্ট ভাবে নিষিদ্ধ করেছে, নোংরা বলে আখ্যায়িত করেছে।

মুফতি মিন্কের রয়েছে বিপুল কর্মমুখর সংগ্রামী জীবন।এই বয়েসে তিনি সংযুক্ত আছেন বিশ্বের বিভিন্ন ইসলামি সংঘটনের সাথে।বিশেষভাবে তিনি মাজলিসুল উলামা জিম্বাবুয়ে এর মধ্যে কাজ করছেন, ইসলাম সম্পর্কে জানতে উৎসুক জনতার মাঝে এবং জিম্বাবুয়েতে প্রাথমিক শিক্ষাদানে তিনি নিয়েজিত আছেন।তিনি হারাতে মসজিদে ফালাহাতে রোস্টের ভিত্তিতে ইমাম হিসেবে কাজ করেছেন।

তাছাড়া মুফতি মিন্ক হারাতে ইমাম কাউন্সিলের অধীনে সা মহিলাদের জন্য প্রতি সাপ্তাহে সাপ্তাহিক সিস্টার্স লার্নিং প্রোগ্রাম পরিচালনা করেন।মুফতি মিন্ক বিশেষভাবে পূর্ব আফ্রিকায় বেশ পরিচিত এবং আন্তর্জাতিকভাবে ত বলার অপেক্ষা রাখে না। তাকে ইসলামি স্কলার হিশেবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অামন্ত্রণ করা হয়ে থাকে।

সম্মাননা ( Awards )

  • • সমাজ-সংস্কারে বিশেষ অবদান রাখার জন্য কেএসবিইএ আন্তর্জাতিক নেতৃত্ব ২০১৫ অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।
  • • ২০১৬ সালে ফিলিপাইনের একটি ধর্মীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক আয়োজিত ‘অ্যালডারসগেইট ইউনিভার্সিটি’ তাকে অনারারি ডক্টরেট দেয়।
  • • তিনি ২০১৪ এবং ২০১৭ সালে ৫০০ টি সবচেয়ে প্রভাবশালী মুসলিম স্কলারদের মধ্যে অন্যতম একজন হিসেবে ঘোষিত হন
  • • মুফতি মেন্কে সৌদি আরবে আফ্রিকার দাওয়াহ কমিটির কাছে “ইসলামের দাওয়াতের প্রচার মাধ্যমের প্রভাব” বিষয়ে তার গবেষণার জন্য প্রথম পুরস্কার লাভ করেন।

মুসলিম যুব সমাজের মাঝে তিনি মোটিভেশনাল স্পিকার হিশেবে বিশেষ স্হান দখল করে নিয়েছেন। সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার অনুপ্রেরণামূলক উক্তির জোয়ার বইছে।মিলিয়ন মিলিয়ন ফলোওয়ার’স তার অনুপ্রেরণায় অনুপ্রাণিত।

Social Profile

তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক ফলোয়ার রয়েছে।
ফেইসবুকে ৩৩ লাখ ফলোয়ার।
টুইটারে ৪.৫ মিলয়ন ফলোয়ার।
ইউটিউবে ২৮ লাখের বেশি সাবসক্রেইবার

Mufti menk Family and net worth:

মুফতি মিঙ্ক তার পিতার নাম শেখ মাওলানা মুসা মিঙ্ক তিনি ও আকজন ইসলামিক স্কলার ছিলেন এবং জিম্বাবুর এক মাসজিদের ইমাম ও ছিলেন, তার ৯ জন সন্তান ৭ মেয়ে এবং ২ ছেলে।

তিনি প্রতি মাসে শুদু তার ইউটিউব চ্যানেল তেকে $347.000 আয় করেন।

This Post Has 2 Comments

  1. mahfuz2

    অনেক কিছু জানলাম

Leave a Reply