টেন মিনিট স্কুলে ১৭ কোটি টাকা বিনিয়োগ পেয়েছে | 10 Minute School Funding

You are currently viewing টেন মিনিট স্কুলে ১৭ কোটি টাকা বিনিয়োগ পেয়েছে | 10 Minute School Funding

টেন মিনিট স্কুলে ১৭ কোটি টাকা বিনিয়োগ পেয়েছে ইন্ডিয়ান সেকোয়া ক্যাপিটাল কোম্পানি থেকে (10 minute school funding) বাংলাদেশের অনলাইনভিত্তিক এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অনেক দিন ধরে বাংলাদেশের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষার্থীদেরকে পাঠদান দিয়ে আসতেছে 10 minute school।

10 Minute School raises $2.0m seed funding from Indian company Sequoia Capital

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইনভিত্তিক শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম টেন মিনিট স্কুল সম্প্রতি ১৭ কোটি টাকা সর্বপ্রথম বিদেশি বিনিয়োগ পেয়েছে। 10 minute school প্রতিষ্ঠানটি প্রথমবারের মতো প্রাতিষ্ঠানিক এ বিনিয়োগ পেয়েছে। ভারতের সেকোয়া ক্যাপিটাল (Sequoia Capital) ইন্ডিয়ান এই কোম্পানিটি ১৭ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে। জানা গেছে এই বিনিয়োগের এর জন্য ভারতের সেকোয়া ক্যাপিটাল কোম্পানিটি টেন মিনিট স্কুলের নতুন মালিকানার সঙ্গে যুক্ত হতে যাচ্ছে।

10 Minute School Funding

10 minute school funding

Sequoia Capital: বিশ্বের শীর্ষ ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানির গুলোর মধ্যে একটি হল ইন্ডিয়ান সেকোয়া ক্যাপিটাল। বাংলাদেশের অনলাইনভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১০ মিনিট স্কুল এত দিন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম হিসেবে প্রকল্পভিত্তিক স্পনসরশিপের মাধ্যমে পরিচালিত হয়ে আসছিল। আর সকলেই জানে 10 minute school এর শুরু থেকেই এটির মালিকানার সঙ্গে যুক্ত আছেন আয়মান সাদিক ও আবদুল্লাহ আবইয়াদ।

10 minute school: টেন মিনিট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা এবং পরিচালক আয়মান সাদিক বলেন, 2021 সালে প্ল্যাটফর্মটিতে 2020 সালের চেয়েও ১২ গুণ বেশি ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধি হয়েছে। Sequoia Capital কোম্পানিটির এই বিনিয়োগের মাধ্যমে 10 minute school এর পণ্য, প্রযুক্তি, দক্ষ জনবল এবং সকল কার্যক্রমের বিস্তার ঘটাতে সাহায্য করবে ২০২২ এর এই নতুন বছরে। (10 minute school funding) এই বিনিয়োগের মাধ্যমে নতুন বছরে টেন মিনিট স্কুলের কার্যক্রম আরও বিকশিত হবে বলে বলেছেন টেন মিনিট স্কুলের মালিক আয়মান সাদিক। এবং সকল ধরনের উন্নতমানের কনটেন্ট তৈরিতে এই Sequoia Capital এর বিনিয়োগটি ব্যাপক ভূমিকা রাখবে।

টেন মিনিট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আয়মান সাদিকের স্বপ্নের প্রতিষ্ঠান এবং টেন মিনিট স্কুল শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার কার্যক্রম শুরু করে 2015 সাল থেকে। শুরু থেকেই বাংলাদেশের সকল স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের অনলাইন পড়াশোনাকে সহজ করতে কাজ করছে টেন মিনিট স্কুল। আর টেন মিনিট স্কুল অ্যাপের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির যেকোনো বিষয় অধ্যায়ভিত্তিক ভিডিও লেকচারের মাধ্যমে শিখতে পারছে। পাশাপাশি নিজেকে যাচাই করার জন্য রয়েছে 10 minute school এ কুইজ এবং অনুশীলনের অনুভব ব্যবস্থা। ফলে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের কাছে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে টেন মিনিট স্কুল অ্যাপ।

বাংলাদেশের সেরা শিক্ষকের তত্ত্বাবধানে তৈরি প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির যেকোনো বিষয়ের ২৫ হাজারের বেশি অধ্যায়ভিত্তিক ভিডিও লেকচার তৈরি করা হয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় এই লার্নিং অ্যাপ ব্যবহার করছে ৩০ লাখের বেশি শিক্ষার্থী।

জানা গেছে ২০২০ সালে ৯০ লাখ নতুন শিক্ষার্থী যুক্ত হয় টেন মিনিট স্কুল এর এই প্ল্যাটফর্মটিতে। দিন দিন এই সংখ্যা আরও বাড়িয়ে নিয়ে যেতে কাজ করছে টেন মিনিট স্কুল।

News source: Protomalo.com

Leave a Reply